পাইকগাছায় প্রেমিক যুগলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : বসন্তের প্রথম সকালে শুক্রবার খুলনার পাইকগাছা উপজেলার একটি কলেজিয়েট স্কুলের হোস্টেল থেকে প্রেমিক যুগলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 000রাড়ুলী আরকেবিকে হরিশচন্দ্র ইনস্টিটিউটের হোস্টেলে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হচ্ছেন ইনস্টিটিউটের এইচএসসি প্রথমবর্ষের ছাত্র রুহুল আমিন মোড়ল (১৯) ও আশাশুনির গদাইপুর গ্রামের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী আয়রা সুলতানা। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। জানা গেছে, শুক্রবার সকালে রাড়ুলী কলেজিয়েট স্কুলের দ্বিতল ভবনের হোস্টেলের একটি কক্ষের দেয়ালের লোহার রডের সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো প্রেমিক যুগলের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। এ খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ কবির উদ্দীন, থানার ওসি সিকদার আককাছ আলী, ওসি (তদন্ত) শ্যামলাল নাথ শ্যামল ঘটনাস্থলে যান এবং লাশ উদ্ধার করেন। কলেজের নৈশপ্রহরী রফিকুল ইসলাম বলেন, সাড়ে ৭টার দিকে হোস্টেলের দ্বিতল ভবনে বিকট শব্দ হয়। এরপর বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আশঙ্কায় বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। পরে কোনও সাড়াশব্দ না পেয়ে হোস্টেলের কক্ষের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দুজনকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখা যায়। পাইকগাছা থানার ওসি (তদন্ত) শ্যামলাল নাথ বলেন, দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে জানা গেছে। তাদের সম্পর্ক দুই পরিবার মেনে না নেওয়ায় এভাবে আত্মাহুতির ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। রুহুল আমিন সাতক্ষীরার তালা উপজেলার নলতা গ্রামের মো. মোতালেব মোড়লের পুত্র আর আয়রা সুলতানা আশাশুনি উপজেলার গদাইপুর গ্রামের আব্দুর রহিম সরদারের কন্যা। সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*