নিখোঁজ মানেই জঙ্গিতে যোগদান নয় : আইজিপি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ডিসেম্বর ১২, ২০১৬
পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, ‘নিখোঁজ হওয়া মানেই জঙ্গিতে যোগদান করা নয়। তাই নিখোঁজ হলে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। অনেকে পারিবারিক বা ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে চলে যায়, আবার ফিরে আসে। তারপরও পুলিশকে জানালে আমরা খুঁজে বের করে আনার চেষ্টা করি এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রে সফল হয়েছি।’
আইজিপি বলেন, ‘জঙ্গিরা বাংলার মাটিতে আর মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না। তারা ইদানীং যে সমস্যার সৃষ্টি করেছিল, তা কঠোর হাতে দমন করা হয়েছে। আমরা তাদের অনেক চাপে রেখেছি। তাদের মেরুদন্ড ভেঙে দিয়েছি।’
আজ সোমবার দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাডা উপজেলা পরিষদের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত ঢাকা রেঞ্জের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শহীদুল হক এসব কথা বলেন। ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি এস এম মাহফুজুল হক নূরুজ্জামান এ সভায় সভাপতিত্ব করেন। এ সময় অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ আলী, আবু কালাম সিদ্দিক, বিনয় কৃষ্ণ বালা, গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপারসহ ১৩ জেলার পুলিশ সুপার, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি চৌধুরী এমদাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, গোপালগঞ্জের পৌর মেয়র কাজী লিয়াকত আলী উপস্থিত ছিলেন।
আইজিপি বলেন, আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনেক ভালো আছে।
দেশে রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশে প্রসঙ্গে সাংবাদিকেদের প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, ‘বেশ কিছু রোহিঙ্গা কক্সবাজারে জনগণের সঙ্গে মিশে গেছে। তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। কারণ, তাদের কথাবার্তা ও আচার-আচরণ ওই খানে বসবাসকারীদের মতো। আমরা তাদের নজরদারিতে রেখেছি, যাতে তারা কোনো ধরনের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে না পারে।’এর আগে আইজিপি গোপালগঞ্জ শহরে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত পুলিশ অফিসার্স মেসের উদ্বোধন করেন। পরে তিনি টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান। সেখানে তিনি ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*