নিউজিল্যান্ডের দেয়া ৩৪২ রানের জবাবে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪৮

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৬ ডিসেম্বর, সোমবার: নিউজিল্যান্ডের দেয়া ৩৪২ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে এদিন শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি বাংলাদেশের। দলীয় ৪৮ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে টাইগাররা। এরপর ব্যাট করতে নামেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।
৫০ বল খেলে তিনি পূর্ণ করেন হাফ সেঞ্চুরি। এটি তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩২তম অর্ধশত। এদিন ৫৪ বল খেলে ৫৯ রান করে ফেরেন সাকিব। এই রান করতে পাঁচটি চার ও দুইটি ছয় মারেন সাকিব। ইনিংসের ২৮তম ওভারে লকি ফার্গুসনের বলে টিম সাউদির হাতে ধরা পড়েন তিনি।
এদিন ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামে তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস। ওপেনিং জুটিতে দুইজন ৩৪ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। ইনিংসের অষ্টম ওভারে টিম সাউদির বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন ইমরুল কায়েস।
২১ বল খেলে তিনি করেন ১৬ রান। এর মধ্যে রয়েছে দুইটি চার ও একটি ছয়ের মার। ইমরুল ফিরে যাওয়ার পর ব্যাট করতে নামেন সৌম্য সরকার। ইনিংসের ১২তম ওভারে দলীয় ৪৮ রানে জেমস নিশামের বলে কেন উইলিয়ামসনের হাতে ধরা পড়েন তিনি। আট বল খেলে সৌম্য করেন এক রান।
সৌম্য সরকার ফিরে গেলে তামিম ইকবালের সঙ্গে জুটি বাঁধেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। জেমস নিশামের ওই একই ওভারে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন রিয়াদ। তিন বল খেলে তিনি করেন শূন্য রান।
এরপর তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান ৩৩ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। ইনিংসের ১৮তম ওভারে দলীয় ৮১ রানে জেমস নিশামের বলে মিচেল স্যান্টনারের হাতে ধরা পড়েন তামিম ইকবাল।
এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ৩৪১ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। দলের পক্ষে টম লাথাম সেঞ্চুরি করেন। তিনি করেন ১৩৭ রান। আর কলিন মুনরো করেন ৮৭ রান। বাংলাদেশের পক্ষে সাকিব আল হাসান ৩টি, মোস্তাফিজুর রহমান ২টি ও তাসকিন আহমেদ ২টি করে উইকেট নেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: