নরসিংদীতে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত ৭

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : নরসিংদীতে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে সাতজনDakiot নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো একজন। রবিবার গভীররাতে জেলার সদর উপজেলার ভাটপাড়া ও পাঁচদোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, পাঁচদোনা ইউনিয়নের টাকশাল গ্রামের এরশাদ মুন্সির ছেলে আনিছুল ইসলামের বাড়িতে ভোররাত পৌনে ৩টার দিকে ১০/১২ জনের একদল সশস্ত্র ডাকাত প্রথমে পুলিশ পরিচয় দিয়ে ঘরে দরজা খুলতে বলে। গৃহকর্তা দরজা না খোলায় এক পর্যায়ে ডাকাতরা দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভিতর প্রবেশ করে অস্ত্রের মুখে গৃহকর্তাকে জিম্মি করে নগদ টাকা, স্বর্ণালকার ও বিভিন্ন জিনিসপত্র ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এ সময় বাড়ির লোকজনের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ডাকাতরা ককটেল ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। এর ফলে এলাকাবাসী স্থানীয় মসজিদের মাইকে ‘ডাকাত ডাকাত’ বলে ঘোষণা দেওয়ায় স্থানীয়রা চারদিকেdakit-1 দিয়ে ডাকাতদের ঘিরে ফেলে। এ সময় ডাকাতরা দিগি¦দিক ছোটাছুটি করে পালানোর চেষ্টা করলে টাকশাল ও ভাটপাড়ায় স্থানীয় লোকজন তাদের এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে। এতে গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলেই সাত ডাকাত নিহত হয়। এ ছাড়া একজন গুরুতর আহত হয়। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে ডাকাতদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম আবুল কাশেম বিষয়টি নিশ্চিত করেছে জানান, রবিবার রাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতে ডাকাত ডাকাত চিৎকার শুনে এলাকাবাসী বেরিয়ে আসে এবং সন্দেহভাজন কয়েকজনকে ধরে পিটুনি দেয়। ওসি জানান, নিহতদের লাশ ভাটপাড়া থেকে সদরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আহত একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*