দোহাজারী পৌরসভায় উন্নীত হওয়ায় ইউনিয়নব্যাপী মিষ্টি বিতরণ ও আনন্দ মিছিল

মোঃ কামরুল ইসলাম মোস্তফা, চন্দনাইশ,১২ জানুয়ারী ২০১৭, বৃহস্পতিবার: দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে পরিচিত জনপদ দোহাজারীকে পৌরসভায় উন্নীত করায় ইউনিয়নব্যাপী চলছে মিষ্টি বিতরণ, আনন্দ মিছিল।
৯ জানুয়ারী (সোমবার) প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস কমিটি (নিকার)’র সভায় দোহাজারীকে পৌরসভায় উন্নীত করা সংক্রান্ত সংবাদটি বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের স্ক্রলে ভেসে উঠার সাথে সাথে উল্লাসে মেতে উঠে স্থানীয় জনতা। একে অন্যকে মিষ্টি মুখ করিয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করতে দেখা গেছে। দোহাজারীকে পৌরসভায় উন্নীত করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপিকে ধন্যবাদ জানান স্থানীয় জনগণ। উপজেলা যুবলীগ নেতা মরহুম আবুল কাশেম লেদু চেয়ারম্যান ফাউন্ডেশনের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ লোকমান হাকিমের নেতৃত্বে একটি আনন্দ মিছিল চট্টগাম-কক্সবাজার মহাসড়ক ও দোহাজারীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পদক্ষিণ শেষে দোহাজারী হাজারী শপিং সেন্টার চত্বরে পথসভায় মিলিত হয়। পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য, প্যানেল স্পীকার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি বলেছেন, বর্তমান সরকার জনবান্ধব উন্নয়নমুখী সরকার। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী দল আ’লীগ যখনই সরকার গঠন করেছে, তখনই বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করেছে। বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। বর্তমান সরকারের আমলে চন্দনাইশ ও সাতকানিয়া (আংশিক) আসনে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে যা চেয়েছি তার চেয়েও বেশি পেয়েছি। চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারী ইউনিয়নকে দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাণিজ্যিক রাজধানী উল্লেখ করে দোহাজারী জনপদকে পুনরায় কোলাহলমুখর করতে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন দোহাজারী ইউনিয়নকে পৌরসভায় উন্নীত করা হয়েছে পর্যায়ক্রমে থানা ও উপজেলায় রূপান্তরিত করা হবে ঐতিহাসিক এই জনপদকে। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নিরলস প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন দাবী করে তিনি বলেন, দোহাজারী ও পুরানগড় তথা বান্দরবানের সাথে সংযোগকারী চৌকিদারফাঁড়ি সেতুর কাজ আগামী ৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে, তাছাড়া চট্টগাম-কক্সবাজার মহাসড়কে সাঙ্গু নদীর উপর আরো দু’টি সেতু খুব শীঘ্রই নির্মাণ হবে বলেও জানান তিনি। রেলের আখেরী ষ্টেশন হিসেবে পরিচিত দোহাজারী রেলওয়ে জংশন সংস্কার কাজও দ্রুতই শুরু হবে এতে কর্মচাঞ্চল্যে পুনরায় কোলাহলমুখর হবে এ জনপদ। সকল ভেদাভেদ ভুলে নবগঠিত দোহাজারী পৌরসভার উন্নয়নে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
পথসভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চন্দনাইশ উপজেলা আ’লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এম. বাবর আলী ইনু, উপজেলা যুবলীগ নেতা মরহুম আবুল কাশেম লেদু চেয়ারম্যান ফাউন্ডেশন সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ লোকমান হাকিম, দোহাজারী ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল্লা আল নোমান বেগ, উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক নবাব আলী, আ’লীগ নেতা আব্দুস শুক্কুর, আব্দুল খালেক জগলু, রফিক মিয়া বানু, ইউ.পি সদস্য জামাল উদ্দীন, শাহ্ আলম, চন্দন ধর, দোহাজারী জামিজুরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিষ্ণু যশা চক্রবর্তী, উপজেলা যুবলীগ নেতা এইচ.এম শহীদ আলী, জাহাঙ্গীর আলম, তমিজ উদ্দীন, ওসমান আলী ভুট্টো, মোঃ ইদ্রিছ, এম. এস গাজী, জিকু, নুর মোহাম্মদ, ওবাইদুল আকবর টুটুল, এস. এম বাবর, সোহেল, মোস্তাফিজ, ইরফান আহমদ জাসু, আলী আকবর, খোরশেদ, প্রজন্মলীগ নেতা সৈকত দাশ ইমন, বেলাল, নাছির উদ্দীনসহ স্থানীয় জনসাধারণ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: