দেশ ও জাতি ও বৃহত্তম মানবগোষ্ঠীর কল্যাণে নিয়োজিত করলে সামগ্রিকভাবে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে: মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১০ জুন ২০১৯, সোমবার: বাংলাদেশ ন্যাশনাল এষ্ট্রোলজার্স সোসাইটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় শাখার উদ্যোগে আয়োজিত ৯ জুন রবিবার সকাল ১০ টায় দ্বিতীয় দিন তৃতীয় ও চতুর্থ অধিবেশন অধ্যক্ষ এ.আর.আচার্য্যরে সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব বঙ্গবন্ধু হলে এক জাতীয় জ্যোতিষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। চতুর্থ অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন। তৃতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. নুরুল ইসলাম বখতিয়ার (সভাপতি, কেন্দ্রীয় কমিটি- বাংলাদেশ ন্যাশনাল এষ্ট্রোলজার্স সোসাইটি), বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ’র সহা- সভাপতি আলহাজ্ব খুরশেদ আলম সুজন, দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ এর সহ-সম্পাদক কাঞ্চন মহাজন, জ্যোতির্ম্ময় পত্রিকার প্রকাশক প্রকাশ পাল, ট্রাইব্যুনাল চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ’র পাবলিক প্রসিকিউটর এড. কানুরাম শর্ম্মা, সমবায় বিভাগ চট্টগ্রাম এর ডেপুটি রেজিষ্ট্রার আশীষ বড়–য়া, প্রফেসর ড.কে রহমান হাওলাদার। এই জ্যোতিষ সম্মেলনে সকলে একই মত পোষণ করে যে, জ্যোতিষ বিজ্ঞান ও মানবসভ্যতার ক্রমবিকাশের ধারায় ওতপ্রোতভাবে সম্পৃক্ত। প্রাচীনকালে রাজা মহারাজাগণ জ্যোতিষের পরামর্শ গ্রহণ করেই দেশের রাজনীতি, যুদ্ধ, প্রভৃতিক মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতেন। মানবসভ্যতার ঊষালগ্ন থেকেই মানুষ প্রকৃতির বিবিধ প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে ক্রমাগত লড়াই করে আসছে। সমাজ সভ্যতার চিরকালই আগামীকাল কি হবে, এই নিয়ে সবাই উদ্বিগ্ন ছিল এবং এখনও আছে। এইক্ষেত্রে জ্যোতিষশাস্ত্রবিদগণ দুর্যোগ ও দুর্বিপাকের সম্পর্কে পূর্বাহ্নে মানুষকে সতর্ক করে দিতে পারেন। তবে সেই হবে জ্যোতিষচর্চার সর্বোত্তম সাফল্য। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, স্বপন কুমার চক্রবর্ত্তী, ড. মাধবাচার্য্য, সলিল আচার্য্য, বিপুল সরকার বিপ্লব, সৈয়দ আতিকুর রহমান, বরুন কুমার আচার্য্য বলাই, কার্তিক কুমার আচার্য্য, রাজু আচার্য্য, সুবীর আচার্য্য, অরূপ আচার্য্য, মিঠু আচার্য্য, রুদ্র আচার্য্য, সমীরণ আচার্য্য, জয় আচার্য্য, বিকাশ আচার্য্য, টিটু আচার্য্য, কুশ মিশ্র, পন্ডিত পান্নালাল শাস্ত্রী, শয়ন আচার্য্য, উত্তম শর্ম্মা, সজল কুমার চৌধুরী, শান্তিপদ আচার্য্য, তরুণ কুমার আচার্য্য, অনুপ আচার্য্য, রুদ্র আচার্য্য, অজয় বনিক, অম্লান চৌধুরী, সংগীত শিল্পী সমীরন পাল, সমীর দাশ। বরিশাল সভাপতি উত্তম আচার্য্য, খুলনা সভাপতি বি কে আচার্য্য, সিলেট সভাপতি অজয় দাশ, অতিরিক্ত মহাসচিব সাইফুল ইসলাম রোমান, ড. আশীষ কুমার আচার্য্য, সংস্কৃতি সম্পাদিকা মাকসুদা আকতার রুমী, অতিরিক্ত মহা-সচিব আমিনুল হক বাপ্পী, মিজানুর রহমান রুবেল, সলিল আচার্য্য, সহ-সভাপতি বরুন কুমার আচার্য্য বলাই, মহাসচিব আতিকুল রহমান, সহ-সভাপতি সজল কান্তি চৌধুরী, স্বপন চক্রবর্ত্তী, সহ-সভাপতি বিমল কৃষ্ণ আচার্য্য, উপদেষ্টা ড. গোলাম মওলা, কাঞ্চন মহাজন, এস,কে পাল, জ্যোতিষ শাস্ত্রী ড. শেখর রায়, বিমল আচার্য্য, বিপ্লব সরকার, যিশু আচার্য্য, পন্ডিত তপন আচার্য্য, পন্ডিত তরু কুমার আচার্য্য, পন্ডিত নারায়ন আচার্য্য, বকতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী করিম। উক্ত সম্মেলনে তিনজনকে মরণোত্তোর, বিপ্লবী দীপ্তী মেধা চৌধুরী, স্বর্গীয় পন্ডিত , নিরোধ বরণ আচার্য্য, স্বর্গীয় পাঁচকড়ী সরকার। গুনীজন সংবর্ধনা পন্ডিত খোকন চন্দ্র আচার্য্য, প্রফেসর কে.রহমান হাওলাদার। অনুষ্ঠান শেষে একটি সম্মেলন স্মরণিকা মোড়ক উন্মোচন করেন এবং বিভিন্ন বিভাগীয় শহর থেকে আগত সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক দেড় শতাধিক জ্যোতিষ ও পন্ডিত পদবীতে সম্মাননা স্মারক, সন্মেলন অংশগ্রহণ সনদ বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*