দেশে গণতন্ত্রের নামে স্বৈরতন্ত্র চলছে : ড. কামাল

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : গণ ফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, বিএনপিকে পেট্রলবোমা ছোঁড়া বন্ধ করতে হবে। আর সরকারকে ইয়াহিয়া আইয়ূব শাসন বন্ধ kamalকরতে হবে। এটি গণতন্ত্র নয়, স্বৈরতন্ত্র। দেশে বর্তমানে সাংবিধানিক শাসন নেই, আমরা জনগণের ক্ষমতায়ন চাই। সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. কামাল হোসেন আরো বলেন, গুলির নির্দেশ দিয়ে কয়জনকে হত্যা করবেন? আন্দোলন কখনো গুলি করে বন্ধ করা যায় না। শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে লাখো ‘শ্রমিকের বুক ফাটা কান্না’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। মোড়ক উন্মোচন করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। গণফোরাম সভাপতি আরো বলেন, অধিকার আদায়ে শ্রমিকদের আরো সচেতন হতে বলে ঐক্যের প্রয়োজন উল্লেখ করে তিনি। আর ঐক্যবদ্ধ থাকলে অধিকার আদায় হয়। কামাল হোসেন বলেন, আমরা চিন্তা করি কীভাবে শ্রমিকদের কম পারিশ্রমিক দেয়া যায়। এ চিন্তা থেকে মালিকদের বেরিয়ে আসতে হবে। ‘লাখো শ্রমিকের বুক ফাটা কান্না’ বইটিতে তাজরীন গার্মেন্টসের অগ্নিকাণ্ড এবং রানাপ্লাজা ধসে সহস্রাধিক শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যুর কথা বর্ণিত আছে। অনুষ্ঠানে আনু মুহাম্মদ বলেন, রানাপ্লাজা ধসের দুই বছর হতে চলল, কিন্তু এখনো কতজন শ্রমিক মারা গেছে তার সঠিক সংখ্যা আদৌ জানা যায়নি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে এখনও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের দেয়া অনুদানের ২০০ কোটি টাকা পড়ে থাকলেও সঠিক পরিচয় না পাওয়ায় তিনি সে অনুদানের অর্থ ব্যবহার করতে পারছেন না। ক্ষতিপূরণ যাদের পাওয়ার কথা তারা এখন ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে। অপরদিকে, এ সুযোগে কিছু সংখ্যক প্রতারক ক্ষতিপূরণ পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ক্ষতিগ্রস্তদের কাছ থেকে টাকা আদায় করছে। বাংলাদেশ টেক্সটাইল গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: