দেশে এখন কোনো রাজনীতি নেই, রাজনীতি একটা দলের কাছে জিম্মি: ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে ডা. শাহাদাত হোসেন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৬ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার: চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, দেশে এখন কোনো রাজনীতি নেই, রাজনীতি একটা দলের কাছে জিম্মি। সেই দলের হাতেই এখন আইনের শাসন ব্যবস্থা, পুলিশ বাহিনী নিয়ন্ত্রণ হয়। সাংবাদিকরাও এখন সত্য প্রকাশ করতে পারে না। মানুষের বাকস্বাধীনতা নেই এখন, তাই অন্যায়কারীরা অন্যায় করতে ভয় পায় না। বাংলাদেশে এখন আইনের শাসন, মানবাধিকার ও মৌলিক অধিকার বলে কিছু নেই। আমাদের দেশে আইন আছে, শাসন হচ্ছে কিন্তু আইনের শাসন নেই। কোনো কোনো পরিবার, গোষ্ঠী ও ব্যক্তির শাসন আছে। আইনের অপপ্রয়োগ হচ্ছে। দীর্ঘদিন থেকে চলে আসা সামাজিক বৈষম্য দুর করে নাগরিক নিরাপত্তা, ভোটাধিকার এবং গণতন্ত্র রক্ষায় সব শ্রেণী পেশার মানুষের ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নামার বিকল্প নেই। তিনি আজ ৬ জুন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সারাদিন জামাল খান রিমা কনভেনশন সেন্টারে দলীয় নেতা-কর্মী, পেশাজীবীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণকে সাথে নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনা করে দোয়া ও মিলাদ-মাহফিল শেষে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এ কথা বলেন। তিনি এ সময় আরো বলেন, কোনো স্বৈরাচার সরকারই বেশি দিন ক্ষমতায় টিকেনি। বর্তমান স্বৈরাচার সরকারও টিকবে না। জনগণের আন্দোলনের মুখেই তাদের পতন ঘটবে। আজ জেল জুলুম হুলিয়ার কারণে জনগণের মাঝে ঈদের আমেজ নেই। মানুষের মাঝে চলছে হাহাকার। মানুষ এ থেকে মুক্তি চাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র উপদেষ্টা সুকুমার বড়–য়া, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র চট্টগ্রাম বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর, সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আবু সুফিয়ান, উপদেষ্টা জাহাঙ্গির আলম, কাজী আকবর, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মিয়া ভোলা, মোহাম্মদ আলী, সবুক্তগীন সিদ্দিকী মক্কী, হারুন জামান, অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, জয়নাল আবেদীন, মাহবুবুল হক, ইকবাল চৌধুরী, পেশাজীবীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সিদ্দিক আহমেদ, নসরুল কদির, এডভোকেট মফিজুল হক ভুইয়া, সাংবাদিক জাহিদুল করিম কচি, এডভোকেট জহিরুল আলম, ডা. তমিজউদ্দিন মানিক, ডা. খুরশিদ জামিল চৌধুরী, ডা. আব্বাস উদ্দিন, ডা. বেলায়েত হোসেন ঢালী, নগর বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক এস এম সাইফুল আলম, শাহ আলম, আব্দুল মান্নান, আনোয়ার হোসেন লিপু, গাজী সিরাজ উল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক কমিশনার আবুল হাসেন, মোঃ শামসুল আলম, ইসহাক চৌধুরী আলিম, সম্পাদক শিহাব উদ্দিন মোবিন, এম আই চৌধুরী মামুন, ডা. সরওয়ার আলম, সহ অঙ্গ সংগঠন, সহ থানা ও ৪১টি ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ডা. শাহাদাত আরো বলেন, এই অবৈধ সরকার ২৯ ডিসেম্বর মিডনাইট নির্বাচনের মাধ্যমে মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করেছে। বিএনপি’র চেয়ারপারসন গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে দীর্ঘ ১৬ মাস কারান্তরীণ রেখেছে। দেশের মানুষের মৌলিক অধিকার, ভোটাধিকার ও গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার জন্য দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। ডঃ শাহাদাত আরো বলেন, দেশের হাজার হাজার গণতন্ত্রকামি নেতা-কর্মী মিথ্যা মামলায় জর্জরিত হয়ে ঘরের বাইরে থাকতে হয়। ঈদ’র দিনেও তাঁরা ঈদ করতে ঘরে আসতে পারে না। সরকারের জুলুম-নির্যাতন নিপীড়নের কারণে দেশের মানুষের মনে ঈদের আনন্দ নেই। উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন ঈদের দিন সকালে জমিয়তুল ফালাহ মসজিদে ঈদের জামাত আদায় করেন। ঈদের জামাত শেষে পশ্চিম বাকলিয়া ডিসি রোডস্থ রহমান ম্যানশন নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মী এবং এলাকার সর্বস্তরের মানুষের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।
ঈদের ২য় দিন রিমা কনভেনশন সেন্টারে নিজ উদ্যোগে আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও রোগ মুক্তি কামনা করে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল শেষে দলীয় নেতাকর্মী, রাজনীতিবিদ, পেশাজীবী, শিক্ষাবিদ এবং নগরীর সর্বস্তরের মানুষের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। ঈদের ৩য় দিন চন্দনাইশ নিজ গ্রামের বাড়িতে যান এবং সেখানে এলাকার সর্বস্তরের মানুষের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*