দেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৪ জানুয়ারী ২০১৭, বুধবার:

বাঙালির স্বাধিকার ও স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে মূলদল আওয়ামী লীগের জন্মের এক বছর আগেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ছাত্রলীগ।

১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত করেন। তাঁর নেতৃত্বেই ওই দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলে আনুষ্ঠানিকভাবে সংগঠনটির যাত্রা শুরু হয়।

বাংলাদেশের ইতিহাসের সব গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রয়েছে ছাত্রলীগের। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন এবং ৫৪’র যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে জনমত গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে সংগঠনটি। পরবর্তী সময়ে ৬২’র ছাত্রআন্দোলন, ৬৬’র ছয়দফা কর্মসূচি এবং ৬৭ সালে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার এক নম্বর আসামি শেখ মুজিবকে মুক্ত করে আনার ক্ষেত্রেও ঐতিহাসিক ভূমিকা ছিল উপমহাদেশের অন্যতম পুরনো এই ছাত্র সংগঠনটি। ৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থানে জনতার কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে রাজপথ কাঁপায় ছাত্রলীগ।

১৯৭০ সালের জাতীয় এবং প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে এবং চূড়ান্ত ভাবে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে ছাত্রলীগের ছেলে-মেয়েরা অনবদ্য ভূমিকা রেখে ইতিহাসে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে রেখেছে।

‘শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতি’স্লোগান নিয়ে দেশের প্রাচীনতম এই ছাত্র সংগঠনের পথচলা। জাতীয় সংকটে জাতিকে মুক্ত করার কাজে ছাত্রলীগ স্বাধীন বাংলাদেশেও একটা সময় পর্যন্ত দারুণ সাফল্য দেখায়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকান্ডের মধ্যে দিয়ে ছাত্রলীগের কর্মতৎপরতায় নিদারুণ স্থবিরতা দেখা দিলেও সময়ের আবর্তনে ছাত্রলীগ নিজেদের আবার গুছিয়ে উঠতে সক্ষম হয়। বিশেষ করে স্বৈরশাসক হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের পতন আন্দোলনের অন্যতম বড় শক্তি ছিল ছাত্রলীগ।

সর্বশেষ সামরিক বাহিনীর সমর্থনপুষ্ট তত্ত্বাবধায়ক সরকারের শাসন অবসান এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায়ও সংগঠনটির ভূমিকা উল্লেখযোগ্য।

তবে সাম্প্রতিককালে বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়ে সংগঠনটির সুনাম ক্ষুণ্ণ করেছেন। সম্প্রতি সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের প্রতিক্রিয়ায় প্রশাসন বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে। অন্য আরেক ঘটনায় কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজেও ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ হয়ে যায়।

এছাড়া চট্টগ্রামের ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ হত্যাকাণ্ডকে ঘিরেও দেশের ছাত্ররাজনীতির নোংরা দিক নিয়ে দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়। তড়িঘড়ি করে লাশ কবর দেয়া হলেও ছাত্রলীগের একাংশের তীব্র প্রতিবাদের মুখে প্রশাসন লাশ কবর থেকে তুলে পুনরায় ময়নাতদন্ত করতে বাধ্য হয়।

এদিকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকাটাইমসের সাথে কথা বলেছেন ছাত্রলীগের সাবেক-বর্তমান নেতারা। ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেছেন, ২০১৭ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি নিরক্ষরতামুক্ত দেশে পরিণত করাই ছাত্রলীগের লক্ষ্য। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ নির্মাণে ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ছাত্রলীগের প্রধান লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য থাকবে অশুভ চক্রান্তকে প্রতিহত করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ নির্মাণ করা।

ছাত্রলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেন, ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারির প্রতিষ্ঠার পর থেকে মেধাবী ছাত্রদের হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে ছাত্রলীগ। বাংলাদেশের আন্দোলন সংগ্রামে ছাত্রলীগ কোনোদিন অশুভ শক্তির সাথে আপস করেনি।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগ মেধাবীদের সংগঠন। বাংলাদেশের ছাত্রসমাজের প্রতি আমার আহবান, আপনারা আমাদের সংগঠনে অংশ নিয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিন।

ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ বলেন, ছাত্রলীগ সবসময় সময়ের সাহসী সন্তানদের নিয়ে এগিয়ে চলছে। বাংলাদেশের ছাত্র সমাজের অধিকার দাবি আদায়ে ছাত্রলীগ নানা পদক্ষেপ নিয়েছে।

৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে ছাত্রলীগ পাঁচ দিনব্যাপী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। বুধবার, সকাল ৬:৩০ মিনিটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন এবং দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি পালন শুরু করবে ছাত্রলীগ।

এদিনই সকাল ৮:০১ মিনিটে কেক কাটা হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে। বুধবার, সকাল ১০ টায় অপরাজেয় বাংলা থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালীর আয়োজন করবে সংগঠনটি। ৫ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে অপরাজেয় বাংলার সামনে সকাল ১০টায় ।

অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ৬ জানুয়ারি, শুক্রবার, দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

৮ জানুয়ারি ।স্থান অপরাজেয় বাংলার সামনে সকাল ১০ টায় শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করবে ছাত্রলীগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*