দেশপ্রেম ও সততা নিয়ে কাজ করলে স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা আরো শক্তিশালী হবে: বিভাগীয় কমিশনার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০২ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার: চট্টগ্রাম বিভাগের ৪ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ৩ জন উপজেলা চেয়ারম্যান, ৩ জন ভাইস চেয়ারম্যান ও ৩ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান আজ ২ জুলাই ২০১৯ ইং মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তাদেরকে শপথ বাক্য পাঠ করান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান। শপথ নেয়া চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানরা হলেন-কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্চারামপুর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান সায়েদুল ইসলাম ভূঁইয়া বকুল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জলি আক্তার, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলী, ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদুর রহমান মান্না ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিত্রী রাণী এবং নোয়াখালী জেলার সদর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নুর আলম ছিদ্দিকী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিলুফা মমিন। বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) দীপক চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) শ্রাবস্তী রায়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিভাগীয় কমিশনার অফিসের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) নুসরাত সুলতানাসহ সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানগণ তাদের নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেন। শপথ গ্রহণ শেষে উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের হাতে ফুল তুলে দিয়ে স্বাগত জানান বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।
শপথ গ্রহন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম আরো দৃশ্যমান করতে পুরুষদের পাশাপাশি নারীদেরকেও সম্পৃক্ত করে সামাজিক মর্যাদা দিয়েছেন। শপথ নেয়ার পর চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানরা বৈধ হলো এবং এখন থেকে সরকার, রাষ্ট্র ও জনগনের কাছে অঙ্গীকারাবদ্ধ। শপথ গ্রহণের পর যে দায়িত্ব কাঁধে নিয়েছেন তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অহংকারী মনোভাব নিয়ে থাকা যাবেনা। এখন থেকে জনগণের কিছু কর্তব্য ও অঙ্গিকার বাস্তবায়নের পালা শুরু হলো। শপথ গ্রহণের পর বৈধভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য সরকারের কাছ থেকে সার্টিফিকেট অর্জন করলেন। প্রত্যেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানরা সততা, নিষ্টা ও দেশপ্রেম নিয়ে আন্তরিকতার সাথে কাজ করলে স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা আরো শক্তিশালী হবে। জনগণের ভোটে আপনারা নির্বাচিত হয়েছেন। জনগনের কাঙ্খিত সেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। সরকারের দেয়া আমানত যাতে খেয়ানত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সরকারি সেবা জনগণের দৌঁড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে। উপজেলা পর্যায়ে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের সাথে সমন্বয় রেখে কাজ করলে ভিশন-২০২১ বাস্তবায়ন ও এসডিজি অর্জনসহ সরকার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবে। কোন ধরনের অপরাধ ও দুর্নীতিতে জড়ানো যাবে না। শপথের যাতে বরখেলাপ না হয় সেদিকে নজর রাখতে হবে। আমরা সকলে মিলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের মহাসড়কে সামিল হলে মানবিক বাংলাদেশ বিনির্মাণ সম্ভব হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*