দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিল মালয়েশিয়ার বিমানটি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : মালয়েশিয়ার নিখোঁজ বিমানটি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিল বলে অবশেষে আনুষ্ঠানিক এক ঘোষণায় জানিয়েছে দেশটির সরকার। ২০১৪ সালের ৮ মার্চ বেইজিংগামী মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন এমএইচ ৩৭০ বিমানটি উড্ডয়নের পর আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। অধিকাংশ যাত্রীই ছিলেন চীনের নাগরিক। ঘোষণায় বলা হয়েছে, বিমানটির কোন যাত্রীই বাঁচেনি। মালয়েশিয়ান কর্মকর্তারা বলছেন, Malasiaউদ্ধার অভিযান এখনও অব্যাহত আছে। তবে বিমানটির ২৩৯ জন যাত্রীর সবাই নিহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। দুর্ঘটনার পরপরই দক্ষিণ ভারত মহাসাগরে আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক তল্লাশি অভিযান সত্ত্বেও এখন পর্যন্ত বিমানটির অবস্থান সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। আনুষ্ঠানিক এই ঘোষণার ফলে নিহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার বিষয়টি সামনে উঠে এসেছে। মালয়েশিয়ান কর্তৃপক্ষ আরও জানান, নিখোঁজ বিমানটি উদ্ধারের কাজকে এখনও প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে এবং বিশ্বাসযোগ্য সব পন্থাই অবলম্বন করা হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ জানান, এই মূহূর্তে চারটি জাহাজ সোনার প্রযুক্তির সাহায্যে গভীর সমুদ্রের প্রত্যন্ত তলদেশে তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছে। ভূ-উপগ্রহ এবং বিমানটি থেকে প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে অস্ট্রেলিয়ার পার্থ শহরের দিকে পশ্চিম সাগরের এই স্থানেই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: