থাই বাণিজ্য প্রতিনিধিদলের সাথে চিটাগাং চেম্বারের মতবিনিময়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১১ ফেব্র“য়ারী: পোর্ট অথরিটি অব থাইল্যান্ড এবং পাবলিক এন্ড বিজনেস সেক্টরস (র‌্যানং)’র সফররত বাণিজ্য প্রতিনিধিদলের সাথে দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভা ১০ ফেব্র“য়ারী রাতে নগরীর একটি স্থানীয় হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম, পরিচালকবৃন্দ চেম্বার পরিচালকবৃন্দ মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী, মাহফুজুল হক শাহ, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী (আলমগীর), এম. এ. মোতালেব, হাবিব মহিউদ্দিন, এস. এম. শামসুদ্দিন, অঞ্জন শেখর দাশ, মোঃ রকিবুর রহমান (টুটুল) ও মোঃ আরিফ ইফতেখার উপস্থিত ছিলেন। Photo(Thai)
থাইল্যান্ড পোর্ট অথরিটির এসেট ম্যানেজমেন্ট এন্ড বিজনেস ডেভেলাপমেন্ট’র এ্যাসিসট্যান্ট ডিরেক্টর জেনারেল পোল লেঃ প্রজাক শ্রীওয়াথানা, ডেপুটি ডিরেক্টর সোমচাই হেমথং, র‌্যানং প্রদেশের গভর্ণর সুরিয়া কানজানাসিল্প, ভাইস গভর্ণর নারং ফোলা-ইয়াদ, থাই বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল’র প্রেসিডেন্ট মিংপ্যান্ট ছায়া, র‌্যানং চেম্বার অব কমার্স’র চেয়ারম্যান মিস. সুদাপর্ন ইয়দপিনিজ, র‌্যানং ফেডারেশন অব থাই ইন্ডাস্ট্রিজ’র প্রেসিডেন্ট ম্যাথুস রানছিয়ানান, র‌্যানং কাস্টম হাউস’র পরিচালক ক্রিসদা তংধামাচার্ত-সহ থাই পোর্ট অথরিটি ও র‌্যানং প্রদেশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ প্রতিনিধিদলের পক্ষে মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন।
চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম চট্টগ্রামের বিনিয়োগ অনুকূল পরিবেশ বিশেষ করে ঢাকা-চট্টগ্রাম চার লেন মহাসড়ক সংলগ্ন মিরসরাই এবং কর্ণফুলীর নদীর অপর পার্শ্বে আনোয়ারায় নির্মিতব্য বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে থাই প্রতিনিধিদলের প্রতি বিনিয়োগের আহবান জানান। থাই মার্কেটে বাংলাদেশের ফার্মাসিউটিক্যালস, কেমিক্যাল, চামড়াজাত পণ্য, ফ্রোজেন ফিশ, পাট ও পাটজাত পণ্য, সিরামিকস্, প্লাষ্টিক, ফার্ণিচার এবং তৈরীপোশাক এর অমিয় সম্ভাবনা রয়েছে উল্লেখ করে চট্টগ্রাম ও র‌্যানং পোর্ট এ সরাসরি শিপিং লাইন চালু করা গেলে বাণিজ্য ঘাটতি অনেকাংশে হ্রাস পাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
থাই বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল’র প্রেসিডেন্ট মিংপ্যান্ট ছায়া বলেন-চিটাগাং চেম্বার তথা এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের সাথে থাইল্যান্ডের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। আঞ্চলিক রাষ্ট্র হওয়া সত্ত্বেও দু’দেশের ট্রানশিপমেন্ট খরচ অত্যধিক। তাই দু’দেশের মাঝে এই খরচ কমিয়ে আনতে ব্যবসায়ী ও সরকারকে এক সাথে কাজ করতে হবে। চেম্বার পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ এতে ধন্যবাদসূচক বক্তব্য রাখেন। তিনি পর্যটন, কৃষি ও মৎস্য খাতে থাই বিনিয়োগ আহবান করেন এবং চট্টগ্রাম-ব্যাংকক সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*