তিন সপ্তাহ পার সাবেক প্রেমিকার ঘরে!

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ ইংরেজী, বৃহস্পতিবার: সাবেক প্রেমিকার বাড়িতে গোপনে প্রবেশ করে তিন সপ্তাহ ধরে অবস্থান করেছেন এক ব্যক্তি। পরে প্রেমিকার ঘর থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। পেনসিলভানিয়ার পিটার্সবার্গ শহরে ঘটনাটি ঘটেছে। জানা গেছে, ৩১ বছর বয়সী ক্যারি কুকুজ্জি গোপনে তার সাবেক প্রেমিকার (৩৭) বাড়িতে প্রবেশ করেন। অবশ্য কুকুজ্জির খারাপ আচরণের কারণে আগে থেকেই যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছিলেন তার প্রেমিকা। যদিও বাড়িতে কেউ ঢুকেছে বলে আগেই সন্দেহ হয় ওই নারীর। কারণ, ঘরের মেঝের এক কোণে কম্বল বিছানো ছিল। এছাড়া টয়লেটের ঢাকনাও খুলে রাখা দেখতে পান তিনি। ওই নারী বলেন, এ ধরনের বিষয় আমার চোখে পড়েছে তবে এড়িয়ে গেছি। বারবার ভেবেছি কে এল আমার বাড়িতে। আমার কীইবা করার ছিল? এদিকে আমি পুলিশেও কল করে বলতে পারছিলাম না যে, ঘরের মেঝেতে কম্বল বিছানো ছিল। তিনি আরো বলেন, তাকে আমি দেখতে পাচ্ছিলাম না। তবে আমার বিশ্বাস ছিল, কারণ আমি সঠিক ছিলাম। তারপর গত শনিবার ওই নারী একা ছিলেন বাড়িতে। রান্নাঘর পরিষ্কার করার সময় মনে হলো বিড়ালের মতো করে একজন চলাফেরা করছে। বিষয়টি খেয়াল করতেই চোখে পড়ে কুকুজ্জি তার শোবার ঘরে দাঁড়িয়ে আছেন। কুকুজ্জি সঙ্গে সঙ্গে ওই নারীকে জাপটে ধরে মুখ চেপে ধরেন। তবে কুকুজ্জিকে কোনো মতে ছাড়িয়ে ওই নারী বাইরে বেরিয়ে চিৎকার করতে থাকেন। তার চিৎকারে প্রতিবেশিরা ৯১১ নম্বরে ফোন করলে পুলিশ পৌঁছায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখে, একগাদা কাপড়ের নিচে লুকিয়ে আছেন কুকুজ্জি। তবে কুকুজ্জির দাবি, ওই বাড়ির চিলেকোঠায় ঘুমানোর জন্য তিনি আসতেন। কারণ, তার কোনো বাড়ি নেই এবং থাকার জায়গার সন্ধান করছেন। তবে কুকুজ্জির বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ করেছেন তার সাবেক প্রেমিকা। আদালতে শুনানি না হওয়া পর্যন্ত সে কারণে তাকে কারাগারেই থাকতে হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*