ঢাকায় ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ঢাকার মিরপুরে ৪ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। lashএক যুবক কথিত বন্দুকযুদ্ধে মারা যাওয়ার কথা স্বীকার করেছে। অপর তিনজন গণপিটুনিতে নিহত হওয়ার কথা পুলিশ দাবি করলেও তাদের শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে । রোববার দিবাগত রাতে মিরপুরের কাজীপাড়ার বাইশবাড়ি এলাকায় অজ্ঞাত তিন যুবককে নাশকতাকারি সন্দেহে গণপিটুনি দেয় স্থানীয় কিছু যুবক। খবর পেয়ে মিরপুর থানার এস আই মাসুদ পারভেজ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই তিন যুবককে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিন যবুককে মৃত ঘোষণা করেন। পরে ময়না তদন্তের জন্য নিহতদের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত ব্যক্তির নাম ওয়াদুদ (৩৫)। মিরপুরের টেকনিক্যাল ব্রিজের নিচ থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয় বলে দাবি জানায় পুলিশ। পরে ঢামেকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওয়াদুদ মিরপুরের ১০ নম্বর ওয়ার্ড শ্রমিক দলের সভাপতি। তাকে সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে ককটেল হামলার সময় হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে তাদের মৃত্যু সম্পর্কে এস আই মাসুদ পারভেজ জানান, গণপিটুনীতে মৃত্যু হওয়া তিন জনের শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে কিনা তা সুরতহাল ও ময়না তদন্তের পর জানা যাবে। এদিকে হাসপাতাল সূত্র জানায়, তিন যুবকের বুকে, মাথায় একাধিক গুলির চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া তাদের সারা শরীরে জখমের চিহ্নও রয়েছে। মিরপুর থানার ওসি সালাউদ্দিন আহমেদ জানান, ওই তিন যুবককে কারা গুলি করেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাছাড়া রোববার সকালে মিরপুরের সিটি কর্পোরেশনের কার্যালয়ের সামনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈশাখী নামে একটি বাসে ককটেল হামলা চালানোর সময় হাতেনাতে ওয়াদুদকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে মিরপুর থানা শ্রমিক দলের সভাপতি পারভেজ ওরফে পিস্তল পারভেজ ও রুবেল নামে একজনের নির্দেশে বাসে ককটেল হামলা চালিয়েছিল। পরে ওয়াদুদকে নিয়ে রাতে পারভেজ ও তার সহযোগীদের ধরতে অভিযান চালানো হয়। টেকনিক্যাল মোড় কল্যাণপুর হাউজিংয়ের কাছে গেলে ওয়াদুদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এতে বন্দুকযুদ্ধে ওয়াদুদ তার সহযোগীদের গুলিতেই মারা যায়। সূত্র : শীর্ষ নিউজ ডটকম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*