ঢাকায় অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠছে নতুন নতুন ভবন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৮ জানুয়ারী ২০১৭, রবিবার:  বিপুল জনগোষ্ঠীকে বুকে ধারণ করতে গিয়ে তিলোত্তমা ঢাকায় প্রতিনিয়ত অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠছে নতুন নতুন ভবন। মূল ঢাকায় আর জায়গা না থাকায় এখন শহরের আশপাশের ডোবা কিংবা নালা ভরাট করেও ইচ্ছেমতও আবাসনের ব্যবস্থা করছে নগরবাসী। সঠিক পরিকল্পনা না থাকায় আবাসনের পাশাপাশি মৌলিক নাগরিক সুবিধা থেকেও বঞ্চিত থাকছেন অনেক মানুষ।
একই সময়ে জন্ম নেয়া অনেক শহরই এখন বিশ্বে পরিকল্পিত নগরীর শীর্ষে থাকলেও ঢাকা রয়েছে অপরিকল্পিত নগরীর শুরুর কাতারে। মানুষের আগমনের সাথে ঢাকায় পাল্লা দিয়ে বাড়ছে উঁচু নিচু অট্টালিকা। যার বেশীর ভাগই নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে নির্মিত হচ্ছে। বিশ্লেষকরা এর জন্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে দায়ী করে ঢাকাকে বাঁচাতে পুনর্গঠনের তাগিদ দিয়েছেন।
দেশ জন্মের ৪৫ বছর পরও অপরিকল্পিত আবাসন ব্যবস্থার জন্য নগর পরিকল্পনাবিদরা দায়ী করছেন রাজউককে। পাশাপাশি এলোমেলোভাবে বেড়ে ওঠা ইট পাথরের নগরীর লাগাম এখনিই না টানতে পারলে ভবিষ্যতে ভয়াবহ পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে বলেও আশঙ্কা তাদের।
তবে রাজউক বলছে, পরিকল্পিত নগরীর জন্য শহর থেকে সরাতে হবে শিল্প, ব্যবসা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সব সংস্থার কার্যালয়। প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জীবিকার তাগিদে ঢাকায় আসছে দেড় হাজারেরও বেশ মানুষ। যাদের বেশির ভাগেরই পূর্ব থেকে নির্ধারিত থাকে না মাথা গোজার জায়গা।
রাজউক চেয়ারম্যান এম বজলুল করিম চৌধুরী বলেন, ‘ শহরের মধ্যে শিল্প স্থাপনা থাকার কথা নয়। বেশ কিছু প্রকল্প ছাড়াও পরিকল্পিত নগরীর জন্য নতুন করে স্যাটেলাইট সিটির পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।
নগর পরিকল্পনাবিদ ইকবাল হাবিব বলেন, ‘রাজউক তাদের নীতিমালা বাস্তবায়নের পরিবর্তে নতুন নতুন প্রকল্প বানাচ্ছে। কিন্তু এটি বেসরকারি খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোও করতে পারতো। ঢাকার মাটির গঠন অনুযায়ী কোথায় উঁচু ভবন হবে, কোথায় নিচু ভবন হবে সেটি নির্ধারণ করা জরুরি। সঙ্গে সঙ্গে জরুরি ঘনত্ব সিদ্ধান্ত নেয়া।’
বর্তমানে এই মেগাসিটি ঢাকার জনসংখ্যা প্রায় পৌনে ২ কোটি। আজ থেকে ২০ বছর আগে যা ছিল তার থেকে এক কোটিরও কম। সুতরাং এ থেকে ধারণা পাওয়া যায় আগামী ২০ বছর পরে কত হবে ঢাকার জনসংখ্যা। তাই এই বিপুল সংখ্যার জনগোষ্ঠীর জন্য সুপরিকল্পিত নগরী গড়ে তুলে সেখানে আবাসন ব্যবস্থা করা যে কারোর জন্যই নিঃসন্দেহে চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার।
তবে বিশ্লেষকরা মনে করেন, সেটা অসম্ভবও নয়। শুধু দরকার ঢাকার বিকেন্দ্রীকরণ এবং এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বিত কার্যক্রম। Ñতথ্যসূত্র : সময় টিভি

Leave a Reply

%d bloggers like this: