ডুবে যাওয়া নৌকার ৭৫০ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা অভিবাসী ইন্দোনেশিয়ায়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ইন্দোনেশিয়া থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে, bangladeshসাগরে নৌকা ডুবির পর ৭৫০ জনের বেশি অভিবাসীকে উদ্ধার করে দেশটির আচেহ প্রদেশে নিয়ে আসা হয়েছে। তবে এর আগে আরেকটি নৌকা দেশটি থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এরা হচ্ছে রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশি সেই সব অভিবাসী যাদেরকে মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া তীরে ভেরার অনুমতি দেয়নি। আচেহ উপকূলে পৌঁছানোর পর বোটটি ডুবতে শুরু করে। এ সময় আশপাশের জেলেরা এগিয়ে আসেন এবং আরোহীদের উদ্ধার করে তীরে নিয়ে যান। ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ এ তথ্য দিয়েছে। ওই শহরের পুলিশ প্রধান সুনারিয়া বলছিলেন, আমরা অভিবাসীদের কাছ থেকে প্রাথমিকভাবে পাওয়া তথ্যে জেনেছি, মালয়েশিয়ার নৌবাহিনী তাদের ইন্দোনেশিয়ার জলসীমা অভিমুখে ঠেলে দিয়েছে। ল্যাংসার এক অভিবাসী কর্মকর্তা সামসুল বাহরি জানান, প্রাথমিক গণনার হিসাবে ৭৫০ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল পেনাং ও ল্যাঙ্কাওয়ি সমুদ্র উপকূল থেকে অভিবাসী বোঝাই দুটি বোটকে ফিরিয়ে দিয়েছে মালয়েশিয়ার নৌবাহিনী। এদিকে রাতের দিকে থাইল্যান্ড উপকূল থেকে বাংলাদেশী ও রোহিঙ্গা বোঝাই আরেকটি বোটকে ফিরিয়ে দিয়েছে সমুদ্রের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্তৃপক্ষ। ওই বোটটিও ইন্দোনেশিয়া অভিমুখে যাত্রা করেছিল বলে জানা গেছে। এর আগে ইন্দোনেশিয়ার আচেহ উপকূল থেকে সমুদ্রে ভাসমান ৫৮২ অভিবাসীকে উদ্ধার করে তাদের আশ্রয় দিয়েছিল দেশটি। থাইল্যান্ডের সমুদ্রসীমায় এ ধরনের একটি নৌ যান বিবিসি সংবাদদাতা পরিদর্শন করেছেন। তীরে ভিড়তে না পেড়ে সেটিও সমুদ্রে ভাসছিল। সূত্র : সংবাদসংস্থা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*