টি-টোয়েন্টিতেও টাইগারদের বিশাল জয়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ১৬ বছরে যে পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় ছিল না। সেই পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়টা যেন ছেলেখেলায় পরিণত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে পাকদের হোয়াইটওয়াশের পর একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও জয় তুলে নিয়েছে টাইগাররা। ওয়ানডে ম্যাচের মতো টি-টোয়েন্টি জয়টাও বিশাল ব্যাবধানে। একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ২২ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটে বিশায় জয় পেয়েছে টাইগাররা। শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জয়ের জন্য ১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খুব একটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। দলীয় খাতায় ৩৮ রান জমা হতেই সাজঘরে ফেরেন ওয়ানডে সিরিজের তিন সেঞ্চুরিয়ান তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিম। ইনিংসের প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে কোন বল না খেলেই রান আউটের শিকার হন টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা সৌম্য সরকার। সৌম্য ফেরার পরপরই ফিরেছেন প্রথম থেকেই ঝড়ো গতিতে খেলতে থাকা তামিম। ফেরার আগে ১০ বলে ২টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ১৪ রান করেছেন এই ওপেনার। এরপর সাকিবের সাথে দারুণ এক জুটি গড়ে তোলার আভাস দিয়ে বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি মুশফিকুর রহিম। ওয়াহাব রিয়াজের বলে আউট হওয়ার আগে ১৫ বলে ৪টি চারে ১৯ রান করেছেন টেস্ট অধিনায়ক। অল্পরানে প্রথম সাড়ির তিন ব্যাটসম্যান ফিরলে একমাত্র টি-টোয়েন্টিতে জয় নিয়ে সন্দেহtiger সৃষ্টি হয় টাইগার ভক্তদের মনে। কিন্তু চতুর্থ উইকেটে রেকর্ড ১০৫ রানের অপরাজিত জুটি গড়ে ২২ বল আগেই দলকে জয় এনে দেন সাকিব আল-হাসান ও সাব্বির রহমান। সাকিব ৪১ বল খেলে ৯টি চারের সাহায্যে সর্বোচ্চ ৫৭ রানে অপরাজিত থেকেছেন। সাব্বির অপরাজিত থেকেছেন মাত্র ৪৩ বলে ৫১ রানের ঝলমলে এক ইনিংস খেলে। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতকটি ৭টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে সাজিয়েছেন সাব্বির। এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতে ভালো খেললেও পরে বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নির্ধারিত ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান তোলে পাকিস্তান। সফকারীদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৭ রান করেন অভিষিক্ত মুক্তার আহমেদ। বাংলাদেশের পক্ষে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন অভিষিক্ত পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। ৪ ওভার বল করে ২০ রানের বিনিময়ে তুলে নিয়েছেন শহীদ আফ্রিদি ও মোহাম্মদ হাফিজকে। এছাড়া একটি করে উইকেট দখল করেছেন তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানি। সাকিব আল-হাসান ব্যাট হাতে ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলার আগে বল হাতেও ছিলেন স্ব-প্রতিভ। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৭ রান দিয়েছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। উল্লেখ্য তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে সফরকারী পাকিস্তানকে ৩-০ তে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেরশ। এবার একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি জিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও পাকদের হোয়াইটওয়াশের লজ্জ্বা দিলো টাইগাররা। সূত্র : শীর্ষ নিউজ ডটকম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*