জিয়া জাদুঘরকে দ্রুত “মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘরে” রূপান্তরের দাবি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, মঙ্গলবার: মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের ছাত্র ফোরামের উদ্যোগে জিয়া জাদুঘরকে দ্রুত “মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘরে” রূপান্তরের দাবিতে এক বিক্ষোভ মিছিল নগরীর লালখান বাজার মোড় থেকে শুরু হয়ে কাজিরদেউরি মোড় এসে সংগঠনের সভাপতি এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাবেক কার্যকরী সদস্য আব্দুর রহিম শামীম এর সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক রাহুল দাশ এর সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নগর যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম, রেজাউল করিম মামুন, নগর ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য মোশরাফুল হক পাবেল, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেজবাহ উদ্দিন সিকদার সুমন, শাহাদাত হোসেন মানিক, ওমর গণি এম.ই.এস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম প্রমি, এস.এম আলামিন বাবু, তোফায়েল হোসেন তুহিন, ইফতেখার আবির এলভি, মোমিনুল হক সুমন, সৈকত দাশ, আহছান মনির প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, স্মৃতি জাদুঘর টি জিয়ার নামে হওয়াতে সাধারণ মানুষের সেখানে দর্শনে যায় না। চট্টগ্রামের আপামর জনসাধারণের দাবি ছিল জিয়া স্মৃতি জাদুঘরকে “মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘরে” রূপান্তর করা। স্থানীয় সাংসদ ও মাননীয় শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সেই দাবি মন্ত্রী সভার বৈঠকে তুলে ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নীতিগত সম্মতি আদায়ের পর থেকে সাধারণ জনগণ মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর হিসেবে কখন নামকরণ করা হবে তার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছে।
এমন সময় জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি বিতর্কিত জিয়ার নাম বহাল রাখার জন্য বিভিন্ন ধরণের চক্রান্ত করছে। হাজার হাজার মানুষ মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর রূপান্তরের পক্ষে স্বাক্ষর করে সংহতি প্রকাশ করছে। বিএনপি যদি আর কোন ধরনের চক্রান্ত করে তাহলে সাধারণ জনগণ কে নিয়ে তা প্রতিহত করা হবে বলে বলেন বক্তারা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: