জাহাঙ্গীরনেগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগের ৪০তম ব্যাচের এক ছাত্রের বিরুদ্ধে ছাত্রী নিপীড়নের অভিযোগ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৩০ অক্টোবর, রবিবার: জাহাঙ্গীরনেগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগের ৪০তম ব্যাচের এক ছাত্রের বিরুদ্ধে ছাত্রী নিপীড়নের অভিযোগ নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটিকে মিথ্যা ও সাজানো নাটক দাবি করে তার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছে এস এম আশিক আহমেদ নামের ওই ছাত্র।1
এ ঘটনায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের হস্তক্ষেপ দাবি করে যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেলে পাল্টা অভিযোগ দিয়েছেন তিনি। তার আগে ইতিহাস বিভাগের এক ছাত্রী ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলেন। সে সময় বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে উঠে আসে। পরবর্তীতে অভিযুক্ত ছাত্রের অনুরোধে ওই ছাত্রী তার অভিযোগ তুলে নিলে পাল্টা নিপীড়ন বিরোধী সেলে অভিযোগ দেন আশিক।
তার দাবি, তাকে যৌন নিপীড়নের মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়ে তার সম্মানহানি হয়েছে। এ জন্য তিনি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ওই ছাত্রীর বিচার দাবি করেন।
এ বিষয়ে যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেলের প্রধান অধ্যাপক ড. রাশেদা আখতার জানান, নিজেদের মধ্যে সমঝাতা সাপেক্ষে দুইজনই তাদের অভিযোগপত্র তুলে নিয়েছে। তাই সেল থেকে আর তদন্ত করা হয়নি। পরবর্তীতে আবার ওই ছেলেটি অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি নিপীড়ন বিরোধী সেলে আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: