চুয়াডাঙ্গায় সাধু গুরুর আস্তানায় দুর্বৃত্তদের হামলা আহত ৩

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৭ জুলাই: চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার একতারপুরে বাউল তরিকাপস্থী এক সাধু গুরুর আস্তানায় দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়েছে। এ সময় ২ জন মহিলাসহ ৩ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। এঘটনার পর থেকে বক্স মণ্ডল নামের একজন নিখোঁজ রয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে এঘটনা ঘটে।kupia
আহতরা হলেন- রশিদা খাতুন (৬০), আব্দুর রহিম (৬৫) ও বুলু বেগম (৫০)। আহতদেরকে প্রথমে জীবননগর হাসপাতালে এবং পরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বিভিন্ন জেলা থেকে সাধু ভক্তরা এসে অনুষ্ঠান শেষে ওই আস্তানায় ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত আনুমানিক ১২ টার দিকে ১০/১২ জন দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আস্তানায় ঢুকে আস্তানায় থাকা সাধু ভক্তদের ওপর এলোপাতাড়িভাবে কোপাতে থাকেন। এ সময় ঝিনাইদহ জেলার ভবানীপুর গ্রামের ফজলুর রহমানের স্ত্রী রশিদা বেগম, কুষ্টিয়া জেলার পোড়াদা গ্রামের আব্দুর রহিম ও তাঁর স্ত্রী বুলু বেগম গুরুতর আহত হয়। তাঁদের চিৎকারে গ্রামবাসীরা ছুটে এলে দৃর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এঘটনার পর থেকে ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলার বলুহর গ্রামের বক্স মন্ডল (৫০) নামের একজন নিখোঁজ রয়েছেন।
আস্তানার মালিক (সাধু গুরু) মুকুল হোসেন জানান, দুর্বৃত্তরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে এঘটনা ঘটিয়েছে। তবে কি কারণে এঘটনা ঘটিয়েছে তিনি বলতে পারেননি বলেও জানান।
হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মো. আনিছুর রহমান জানান, আহত রশিদার গলায় ও মুখে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। আব্দুর রহিম ও বুলু বেগমকে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে। এছাড়া বুলু বেগমের ডান পা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক।
জীবননগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির জানান, আমার কাছে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। তবে ঘটনাটি লোকমুখে শোনার পর বিষয়টি তদন্ত করে দেখার জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: