চসিকের জায়গায় নির্মিত হচেছ চট্টগ্রাম হাইটেক পার্ক

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, শুক্রবার: আইসিটি (তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি) খাতে দক্ষ জনশক্তি তৈরী ও ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে দেশের প্রতিটি জেলায় একটি করে “হাইটেক পার্ক” নির্মাণের পরিকল্পনা আছে সরকারের। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম ব্যাতীত ঢাকাসহ ১২টি জেলায় এই হাইটেক পার্ক নির্মাণ কাজ চলছে। এতে করে হতাশ ছিলেন চট্টগ্রামবাসী। অবশেষে চট্টগ্রামবাসীর সেই কাংখিত ইচ্ছা পুরণ করলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। আজ শুক্রবার সকালে হাইটেক পার্ক নিমাণে প্রস্তাবিত বিএফআইডিসি রোড় সংলগ্ন চসিক মালিকানাধীন জায়গা পরিদর্শনকালে মন্ত্রী চসিকের এ জায়গাকে হাইটেক পার্ক নির্মাণের উপযুক্ত জায়গা বলে মন্তব্য করে জরুরী ভিত্তিতে কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করে কাজ শুরু করার নির্দেশ দিলেন হাইটেক পার্ক-১২ এর প্রজেক্ট ডাইরেক্টর ইঞ্জিনিয়ার এম.জি মোস্তাফাকে। এই সময় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রীর একান্ত সচিব খোরশেদ আলম খান, ৭- আইটি’র প্রজেক্ট ডাইরেক্টর গৌরি শংকর ভট্টচার্য্য, ১২ আইটির সহকারী প্রকল্প পরিচালক মো. কামরুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, প্রধান রাজস্ব কর্মকতা মোহাম্মদ আবু শাহেদ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী লে.কর্ণেল মহিউদ্দিন আহমদ, হ্যালো ওয়ার্ল্ড এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মিজবাহ উদ্দিন চৌধুরীসহ কর্পোরেশনের কর্মকতাগন উপস্থিত ছিলেন।
পরিদর্শনকালে সিটি মেয়র বিএফআইডিসি রোড়স্থ চসিকের ১১ দশমিক ৫ একর জয়গার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে মন্ত্রীকে অবহিত করেন এবং মন্ত্রী পায়ে হেঁটে পুরো জায়গার সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করেন। পরিদর্শনকালে মন্ত্রী শহর কোলে হাইটেক পার্ক নিমাণে চসিকের মালিকানাধীন জায়গা প্রদানের ইচ্ছা পোষণ করায় সিটি মেয়র আ.জ.ম. নাছির উদ্দীনকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন এ নগরে এই রকম জায়গা পাওয়াটা খুবই দুস্কর। সেই ক্ষেত্রে চসিক এগিয়ে আসায় বর্তমান সরকারের রুপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নে অনেক দুর এগিয়ে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। চসিকের জায়গায় হাইটেক পার্ক নির্মাণের কথা উল্লেখ করে একটি পুকুর অক্ষুন্ন রেখে দ্রুত সময়ের মধ্যে ১১দশমিক ৫একর জায়গা সার্ভে রিপোর্ট মন্ত্রণালয়ে প্রেরণের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট এলাকায় সাইন বোর্ড টাঙানো ও মাটি ভরাটের কাজ শুরুর প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের দিক নির্দেশনা দেন মন্ত্রী। এই প্রসংগে তিনি দেশের ১২টি হাইটেক পার্ক এর কাজ একই সাথে শুরু করা কথাও পরিদর্শনকালে উল্লেখ করেন।
চট্টগ্রামে হাইটেক পার্ক নিমাণে এগিয়ে আসায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন সরকার এবং ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার’র নিকট কর্তৃজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, এই পার্ক নির্মাণের ফলে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এবং চট্টগ্রামবাসী উপকৃত হবেন। এই অঞ্চলের গুরুত্ব বৃদ্ধি পাবে। নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্ঠি হবে। সফটওয়্যার ডেভেলাপমেন্ট ও আইসিটি পণ্য উদ্ভাবন এবং তা বিদেশে রপ্তানির সুযোগ সৃষ্টি হবে। এতে সরকারে রপ্তানি আয় সংক্রান্ত অভিষ্ঠ লক্ষে পৌঁছাতে এ হাইটেক পার্ক গুরুত্বপূূর্ণ ভুমিকা রাখবে বলে মেয়র প্রত্যাশা রাখেন। এর পূর্বে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন সার্কিট হাউজে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*