চবিতে পানির ফোয়ারসহ দৃষ্টিনন্দন লেক

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৬ জানুয়ারী, ২০১৭, শুক্রবার: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের পেছনের জায়গা। কয়েক মাস আগেও গাছ আর লতাপতায় ঢাকা এই জায়গাটা এক প্রকার জঙ্গলই ছিল। সঙ্গে ছিল দুগন্ধের নালা। তাই পাশের পথ দিয়ে আসা-যাওয়ার সময়ে তা দেখে অস্বস্থিবোধ করতেন যে কেউ।
এবার একটা কল্পনার রাজ্যে ঘুরে আসুন। ভাবুন-ওই জায়গায় এখন আর জঙ্গল নেই, নেই নালাও। সেই নালা এখন রূপ নিয়েছে লেকে। লেকজুড়ে আছে পানির ফোয়ারা, পাড়ে বিভিন্ন ফুলের বাগান। লাগানো হয়েছে দৃষ্টিনন্দন গাছও। আপনি সেখানে বসে আছেন। আর রুপের সৌন্দর্য উপভোগ করছেন।
আপনার এই কল্পনাটা পুরোপুরি বাস্তবে রূপ পাবে চলতি বছরের মধ্যেই। সেই সৌন্দর্যবর্ধনে এগিয়ে চলছে কাজ। বুধবার (৫ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনিক ভবনের পেছনে গিয়ে দেখা গেছে জোরেশোরে কাজ চলছে। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে জায়গাটা। পাড়ে লাগানো হয়েছে বিভিন্ন ফুলের চারাগাছ। কোনো কোনো গাছে ফুটেছে ফুলও।
বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের শেষের দিকে এর কাজ শেষ হবে। অর্থ্যাৎ শিক্ষার্থীরা ২০১৭ সালের মধ্যে একটি পরিপূর্ণ দৃষ্টিনন্দন লেক পাবে। এই জন্য খরচ হয়েছে লাখ কয়েক টাকা।
বিশ্ববিদ্যালয় (ভারপ্রাপ্ত) রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. কামরুল হুদা বলেন, ‘প্রশাসনিক ভবনের ওই জায়গায় পানির ফোয়ারসহ একটি দৃষ্টিনন্দন লেক হবে। পানির ফোয়ারা তৈরি করতে যে খরচ তা বহন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা। বাকি টাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বহন করছে। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি বছরেই এর কাজ শেষ হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*