চন্দনাইশ ছাত্র সমিতির ব্যতিক্রর্মী পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৪ ফেব্র“য়ারী: চন্দনাইশ ছাত্র সমিতির ৮ম বর্ষপূর্তির ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ “ক্যাম্পাস আমার, রাখব পরিষ্কার” পরিচ্ছন্নতা অভিযান বরমা ত্রাহি মেনকা উচ্চ বিদ্যালয়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের ccs-1সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। পরিচ্ছন্নতা অভিযানের শুভেচ্ছা দূত ছিলেন “পরিবর্তন চাই”র চেয়ারম্যান ফিদা হক। নোমান উল্লাহ বাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ক্যাম্পেইনে বিশেষ অতিথি হিসেবে পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশগ্রহণ করেন আনসার ভিডিপি, চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক এ এস ccs-2এম আজিম উদ্দিন, ভাষা আন্দোলন মিউজিয়ামের সহ-সভাপতি মাহমুদ বিন কাসেম, ওমর সুলতান ফাউন্ডেশনের পরিচালক নজরুল ইসলাম, বরমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, আ’লীগ নেতা বলরাম চক্রবর্তী, মিজবাহ উদ্দিন খান ভুট্টো, আনোয়ারুল ইসলাম ভেসফা, জাফর মেম্বার, বরমা ত্রাহি মেনকা উচ্চ ccs-3বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ এইচ এম সৈয়দ হোসেন, সৈয়দ শিবলী ছাদেক কফিল, আবদুল্লাহ আল নোমান, তানভির আহমদ সিদ্দিকী, মুক্তা নাথসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সামাজিক ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। পরিচ্ছন্নতা অভিযানপূর্বক অনুষ্ঠানে মফিজুর রহমান বলেন, বাসযোগ্য সমাজ ও রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য পরিচ্ছন্নতার উপর ccs-4সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি ও পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। আগামী প্রজন্মের জন্য বসবাস উপযোগী পরিবেশ রেখে যেতে হলে সবাইকে দায়িত্ববান হতে হবে। একদিকে জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব অন্যদিকে নিজেদের সৃষ্ট দূষণে অতিষ্ট হয়ে উঠছে পৃথিবী। পরিবেশ সুরক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় সবার সম্মিলিত প্রয়াস প্রয়োজন। ছাত্রছাত্রীরা শ্রেণী কক্ষ ও মাঠ পরিচ্ছন্ন রাখার মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে ccs-5পরিবার এবং সমাজেও পরিবেশ সুরক্ষার বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধি পাবে। ফিদা হক বলেন, প্রান্তিক এলাকায় পরিচ্ছন্নতা অভিযান প্রশংসনীয় উদ্যোগ। চতুর্পাশের ময়লা অবর্জনা অসুস্থ সমাজ তৈরী করছে। যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা ফেলা থেকে বিরত থেকে পরিচ্ছন্ন দেশ গঠনে নতুন প্রজন্মকে ভূমিকা রাখতে হবে। উল্লেখ্য প্রায় ২’শ শিক্ষার্থী হাতে গ্লাবস ও ঝাড়–, মুখে মাক্স ও টি-শার্ট পরিধান করে “ক্যাম্পাস আমার, রাখবো পরিষ্কার” ক্যাম্পেইনে শ্রেণী কক্ষ, বিদ্যালয় মাঠ ও বরমা ইউনিয়ন সংলগ্ন এলাকায় পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালায়। এতে পার্শ্ববর্তী ৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরাও ময়লা আবর্জনা সংগ্রহে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: