চন্দনাইশে চেয়ারম্যান পদের ফলাফল স্থগিত

 

চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতার ঘটনায় স্থগিত হয়ে যাওয়া দুটি কেন্দ্রে পুনঃনির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত হয়নি।

এম এম রাজামিয়া রাজু , ২৫ মার্চ ২০১৯ ইংরেজী, সোমবার: সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান বলেন, চন্দনাইশে স্থগিত দুটি কেন্দ্রে পুনরায় ভোটের তারিখ নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করবে। এ বিষয়ে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

রোববার (২৪ মার্চ) সকালে ভোটগ্রহণ শুরুর ঘণ্টাখানেক পর থেকে পূর্ব চন্দনাইশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ঢুকে একদল দুর্বৃত্ত জোরপূর্বক জাল ভোট দেয়ার চেষ্টা করে। এতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বাধা দেয়। এ সময় দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে দুর্বৃত্তরা পুলিশের ওপর গুলি চালায়। এতে কনস্টেবল ফরহাদ হোসেন গুলিবিদ্ধ ও পুলিশ কর্মকর্তা শাহ আলম আহত হন।

দিনশেষে চেয়ারম্যান পদে ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করা হয়। দুটি কেন্দ্র ছাড়া অন্যান্য কেন্দ্রগুলোতে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২২ হাজার ২২৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এ কে এম নাজিম উদ্দীন নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৯ হাজার ৬৭৪ ভোট।

এছাড়া বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান  ইসলামি ফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী মাওলানা সোলায়মান ফারুকী (মোমবাতি প্রতীক) পেয়েছেন ২২হাজার ৮০৮ ভোট এবং আওয়ামী লীগ সমর্থিত অ্যাডভোকেট কামেলা খানম রূপা (প্রজাপতি প্রতীক) পেয়েছেন ২৩ হাজার ৯৬৬ ভোট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*