চতুর্থ ধাপে চট্টগ্রামের ২৮ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৭ মে: চতুর্থ ধাপে চট্টগ্রামের ২৮ ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) শনিবার (৭ মে) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে রাউজানের ১৪টি এবং হাটহাজারীর ১৪টি ইউনিয়ন রয়েছে। নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। তবে যেসব ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন, সেখানে বিভিন্ন কেন্দ্রে দু’পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনার খবর পাওয়া গেছে।vote-bg
শনিবার সকাল ৮টা ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে। রাউজান উপজেলার ১৪ ইউনিয়নের ৬৯টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। হাটহাজারী উপজেলার ১৪ ইউনিয়নের ১২৮ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) মোস্তাফিজুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার অভিযোগ পাইনি। তবে হাটহাজারীর বিভিন্ন কেন্দ্রে উত্তেজনার খবর পাওয়া গেছে। রাউজানের বিভিন্ন কেন্দ্র একেবারে শান্ত।
রাউজানের ১৪ ইউনিয়নের ১১টিতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। মাত্র তিনটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হচ্ছে। সাধারণ ও মহিলা সদস্য পদে ১১২জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন ৫৬ জন পুরুষ ও মহিলা সদস্য প্রার্থী।

হাটহাজারীর ১৪ ইউনিয়নের প্রতিটিতে নৌকা ও ধানের শীষের প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে আছেন। পুরুষ ও মহিলা ইউপি সদস্য পদেও উভয় দলের সমর্থকরা অংশ নিয়েছেন। সেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) মোস্তাফিজুর রহমান।
দুই উপজেলার প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে ১৭ জন আনসার (৪জন অস্ত্রধারী) ও ১ জন এস আই’র নেতৃত্বে ৪ জন পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে। এছাড়া উভয় উপজেলায় একজন বিচারিক হাকিম ও ৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে স্ট্রাইকিং ফোর্স, তিন প্লাটুন করে বিজিবি ও র‌্যাবের ৪টি করে টিম টহল দিচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*