চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও রাইজিং স্টার স্কুলের সংবর্ধনা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৪ ফেব্র“য়ারী: মধ্যম আয়ের বাংলাদেশ গড়ে তোলতে সমাজের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর শতভাগ শিশুকে স্কুলমূখী করার জন্য সমাজ সচেতন নাগরিকদের প্রতি আহবান জানিয়ে চান্দগাঁও থানাধীন রাইজিং ষ্টার স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষা জিনাত আরা খানম বলেন তৃনমুল পর্যায়ে অনুন্নত ও পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলোতে পড়ালেখার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে সচেতনতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। সরকারী বেসরকারী উদ্যোগে কাউন্সিলিং করে তাদেরকে বুঝিয়ে দিতে হবে নিরক্ষরতা দেশ, জাতি ও পরিবারের জন্য অভিশাপ এবং স্কুল হচ্ছে প্রকৃত মানুষ গড়ার কারখানা।sang
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এম আশরাফুল আলমের সংবর্ধনা প্রদান উপলক্ষে রাইজিং ষ্টার স্কুল কর্তৃক আয়োজিত এক অনুষ্টানে তিনি সভাপতির বক্তব্য দিচ্ছিলেন। স্কুল মিলনায়তনে শনিবার সকাল ১০টায় এ অনুষ্টানে প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম সরকারী টিসার্স টেনীং কলেজের সহকারী অধ্যাপক রেহানা জিলানী। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্কাইটেক বিল্ডার্স এন্ড ডেভলপার্স লি: এর চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম, ব্যাংক ব্যবস্থাপক মঈন উদ্দীন মন্জুর, এডভোকেট ছৈয়দ জান ই আলম এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্কুলের চেয়ারম্যান ও শিক্ষানুরাগী মুহাম্মদ খালেছ নুর খালেদ। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন রাইজিং ষ্টার স্কুল এন্ড কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল পবন বড়–য়া, শিক্ষিকা কামরুন্নেছা, শিক্ষিকা খতিজা বেগম, শিক্ষিকা মিনা আকতার, শিক্ষিকা সেলিনা আকতার এবং শিক্ষক কাজী মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম।
অধ্যক্ষা জিনাত আরা খানম বলেন, অশিক্ষিত লোক অন্ধের সমান এবং পরিবার ও সমাজের বোঝা। শিশুরা স্বপ্ন দেখে উচুঁ মানের মানুষ হওয়ার। অভিভাবকরা সচেতন ও আন্তরিক না হলে এ সব শিশুর মানবিক বিকাশ কখনো সম্ভব নয়। সংবর্ধনার জবাবে ওয়ার্ড কাউন্সিলর এম আশরাফুল আলম বলেন, স্কুলে পাঠ্য বই চর্চার পাশাপাশি মেধা বিকাশের অনুশীলন, আদব কায়দা, শৃংখলা, নৈতিকতা, দেশ প্রেম সর্বোপরি মনুষ্যত্ববোধ ও মানবিক গুণাবলীসমুহ নিবিড়ভাবে শিক্ষা দেয়া হয়। তিনি সুস্থ ও সুন্দর জীবনের স্বার্থে এলাকার সকল শিশুকে নিয়মিত স্কুলে পাঠানোর জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান। স্কুলে পড়ালেখার গুণগত মান আরো বৃদ্ধি করার আহবান জানিয়ে প্রধান বক্তা রেহানা জিলানী বলেন, শুধু পাঠ্যবই নয়, বরং সময়োপযোগী নানা কর্মমুখী জ্ঞানে বলিয়ান করতে হবে শিশুদেরকে। অন্যথায় তারা প্রতিযোগিতায় ক্রমাগত পিছিয়ে পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*