চট্টগ্রাম জেলা কমান্ড ইউনিট কর্তৃক বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ’র ৪৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, বুধবার: বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ-এর ৪৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম জেলা কমান্ড ইউনিটের উদ্যোগে চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্ত্বরে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে কর্মসূচির সূচনা করা হয়। পতাকা উত্তোলন শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। চট্টগ্রাম জেলা কমান্ড ইউনিট সভাপতি কমান্ডার শাহাবউদ্দিনের সভাপতিত্বে আজ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী সংসদের পতাকা ও বিশেষ অতিথি দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোছলেম উদ্দিন আহমদ জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। পাতাকা উত্তোলন শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে কেক কেটে আলোচনা সভা শুরু হয়। চট্টগ্রাম জেলা কমান্ড ইউনিট সভাপতি কমান্ডার শাহাবউদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি গোলাম ফারুক বিপিএম, পিপিএম, ডেপুটি কমান্ডার সরওয়ার কামাল, সিভিল সার্জন আজিজুল হক ছিদ্দিকী, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার এমরান ভূঁইয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কামাল উদ্দিন আহমেদ, অর্থ কমান্ডার আবদুর রাজ্জাক, দপ্তর কামান্ডার আলাউদ্দিন, প্রচার কমান্ডার নাসির উদ্দিন, ক্রীড়া কমান্ডার বদিউজ্জামান, পাঠাগার কমান্ডার বোরহান উদ্দিন, শ্রমিক লীগ নেতা শফর আলী, মিরসরাই উপজেলা কমান্ডার কবীর আহমদে, হাটহাজারী উপজেলা কমান্ডার নুরুল আলম, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা কমান্ডার খায়রুল বশর, আনোয়ারা উপজেলা কমান্ডার ফজল আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আবদুস সালাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মিহির বরণ সাহা রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা চট্টগ্রাম জেলা কমান্ড ইউনিটের কমান্ডার শাহাব উদ্দিনের সূচনা বক্তব্যের মাধ্যমে আলোচনা সভা শুরু হয়। সভায় বক্তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা ৪র্থ বারের মত প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জ্ঞাপন করা হয়। সভায় বক্তারা মুক্তিযোদ্ধা সংসদে অনতিবিলম্বে নির্বাচন দেয়ার জন্য মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি আকর্ষণ ও হস্তক্ষেপ কামনা করেন এবং মুক্তিযোদ্ধাদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেয়ার দাবী জানান। এ সময় শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: