চট্টগ্রাম অঞ্চল শিবিরের দায়িত্বশীল সমাবেশ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত বলেন মহান আল্লাহ শেষ নবীর উম্মত হিসেবে তাঁর দ্বীনের দাওয়াত পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব আমাদের উপর অর্পণ করেছেন। কেননা তিনি হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর পর আর কোন নবী এ ধরায় আর পাঠাবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন। যেহেতু মানুষ সর্বদা জাগতিক লোভ লালসায় মগ্ন থাকেন তাই তারা পরকালীন সফলতা লাভের ব্যাপারে বেমালুম ভুলে যান। ¯্রষ্টার দেয়া বিধান পালন না করে মানুষ222222 দুনিয়াবী স্বার্থের পেছনে লেগে থাকায় মহান প্রভু আমাদের উপর নানা ধরনের আযাব দিয়ে পরীক্ষা করে থাকেন। এরই একটি অংশ বর্তমান ক্ষমতাসীন শাসকের হাজারো নির্যাতন। যারা আমাদের এ প্রিয় মাতৃভূমি থেকে ইসলাম ও ইসলামী আকীদা মুছে দেয়ার জন্য সদা তৎপর। এ লক্ষ্যে তারা দেশের নন্দিত ইসলামী নেতৃত্বের বিরুদ্ধে শতাব্দীর নিকৃষ্ট মিথ্যা, কাল্পনিক কাহিনী সাজিয়ে তাদেরকে দুনিয়া থেকে বিদায় করে দিচ্ছে। তারা শুধু নেতাদের বিদায় করে ক্ষান্ত হচ্ছে না যেসব ব্যক্তিবর্গ সমাজে ইসলামের সুমহান বানী পৌঁছে দেয়ার কাজ করে যাচ্ছে তাদের উপর চালানো হচ্ছে নির্মম নির্যাতন। তাই শাসক শ্রেণির জুলুম, ষড়যন্ত্র নির্যাতনের ভয়াবহতার মাত্রা যতই হোক না কেন এ সবের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিটি ছাত্রের কাছে আল্লাহর দ্বীনের দাওয়াত পৌঁছিয়ে দেয়ার জন্য তিনি ছাত্রশিবিরের সকলের প্রতি আহ্বান জানান। ইসলামী ছাত্রশিবির চট্টগ্রাম অঞ্চল দায়িত্বশীল সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আজ ৪ মে এসব কথা বলেন। এতে আরো বক্তব্য রাখেন শিবিরের কেন্দ্রীয় কলেজ কার্যক্রম সম্পাদক মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, কেন্দ্রীয় গবেষণা সম্পাদক মু’তাসিম বিল্লাহ, চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তর সভাপতি নুরুল আমিন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান, নগর দক্ষিণ সভাপতি মাহমুদুল ইসলাম প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন দেশের প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থা যেখানে সৎ, যোগ্য, দেশপ্রেমিক নাগরিক তৈরি করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ ঠিক তার বিপরীতে ইসলামী ছাত্রশিবির একটি স্বতন্ত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেশে সৎ, দেশপ্রেমিক নাগরিক উপহার দেয়ার চেষ্টা চালিয়ে আসছে। বক্তারা বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে সন্ত্রাস, দুর্নীতিমুক্ত সম্ভাবনার বাংলাদেশ গঠনে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*