চট্টগ্রামে মুজাহিদ ও সালাহউদ্দিন’র গায়েবানা জানাজা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৩ নভেম্বর: জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল ও সাবেক মন্ত্রী শহীদ আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ আওয়ামী ফ্যাসিবাদী সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ও ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে শাহাদাতের অমীয় সুধা পান করেছেন। জানাজা পূর্ব সমাবেশে 232302জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেন জাতীয় নেতা ও সাবেক সমাজকল্যাণ মন্ত্রী হিসাবে ন্যায় ও সততার সাথে ছাত্রজীবন থেকেই দেশ-জাতির কল্যাণে দক্ষতা, যোগ্যতার সাথে দায়িত্ব পালন করে দুর্ণীতিমুক্ত দেশ ও সমাজ গঠনে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছেন। অবৈধ সরকার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ হিসাবে জামায়াতকে নেতৃত্বশূন্য করার জন্য ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে তাঁকে হত্যা করেছে। এভাবে জাতীয় নেতা ও ইসলামী আন্দোলনের নেতৃত্বকে হত্যা করে জাতির মুক্তি আন্দোলনকে স্তদ্ধ করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন। নেতৃবৃন্দ বলেন তিনি ছিলেন একজন সৎ, যোগ্য ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ। দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তিনি ছিলেন সবার অগ্রণী। তাঁর বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা, বানোয়াট ও কল্পনাপ্রসূত যা প্রসিকিউসন গণমাধ্যমে স্বীকার করেছেন। তিনি ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। ইসলামী আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ায় ছিল তাঁর গুরুতর অপরাধ। নেতৃবৃন্দ জামায়াত নেতা শহীদ আলী আহসান মোঃ মুজাহিদ ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরী’র রক্তের বদলায় আল্লাহর জমিনে ইসলামকে বিজয়ী করে এর বদলা নেয়ার জন্য ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। 232303
চট্টগ্রাম মহানগরী জামায়াতের উদ্যোগে ঐতিহাসিক প্যারেড ময়দানে বাদ আছর গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা পূর্ব সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম মহানগরী জামায়াতের সেক্রেটারী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও কক্সবাজার জেলা আমীর মাও. মুহাম্মদ শাহজাহান, কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য মাওলানা মুমিনুল হক চৌধুরী, সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরীর ভাই গিয়াস উদ্দীন কাদের চৌধুরী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জামায়াতের আমীর মাও. জাফর সাদেক, নগর বিএনপির সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, শহীদ সালাউদ্দীন কাদের এর ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের, বড় ছেলে ফায়াজ কাদের চৌধুরী। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম নগর জামায়াতের এসিস্টেন্ট সেক্রেটারী অধ্যক্ষ মুহাম্মদ নুরুল আমিন, আ.জ.ম. ওবায়েদুল্লাহ, অধ্যক্ষ মাওলানা খাইরুল বাশার, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ উল্লাহ, ডাঃ ছিদ্দিকুর রহমান, মাওলানা লিয়াকত আখতার ছিদ্দিকী, মাওলানা হারুনুর রশীদ, বাংলাদেশ ন্যাপ এর নগর সভাপতি ওসমান গণি সিকদার, নগর উত্তর শিবির সভাপতি নুরুল আমিন, নগর দক্ষিণ শিবির সভাপতি মাহমুদুল হাসান, জামাল উদ্দীন কাদের চৌধুরী, শামীম কাদের চৌধুরী, শাকের কাদের চৌধুরী, সাকিব কাদের চৌধুরী, খাতিব কাদের চৌধুরী, নগর শিবিরের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।
জানাজায় ইমামতি ও মোনাজাত পরিচালনা করেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও প্রবীণ আলেম মাওলানা মুমিনুল হক চৌধুরী ও জানাজা শেষে কুনুতে নাযেলা পাঠ করেন নগর জামায়াত সেক্রেটারী মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম। জানাজা শেষে নেতৃবৃন্দ আগামী ২৩ নভেম্বর আহুত সকাল-সন্ধ্যা হরতাল সফল করার জন্য নগরবাসীর প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

Leave a Reply

%d bloggers like this: