চট্টগ্রামে নিলর্জ্জ ভোট ডাকাতি!

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : চট্টগ্রাম সিটির চান্দগাঁও ওয়ার্ডের এন cccএমসি স্কুল, ওয়াছিয়া মাদ্রাসা ও কোতোয়ালী থানার কদমমোবারক স্কুল, আইন কলেজ, কেন্দ্রসহ কেন্দ্র দখলে নিয়েছে সরকার সমর্থকরা। সকাল ৯ টার দিকে কেন্দ্রটি দখলে নিয়ে মেয়র প্রার্থী আ.জ.ম. নাছির (হাতী) এর পক্ষে জাল ভোট দেয় তারা। অপরদিকে ওই ওয়ার্ডের বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদেরকে সব কেন্দ্রের সামনে থেকে সরিয়ে দিচ্ছে হাতী সমর্থকরা। অন্যদিকে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ক্যাডারেরা বাহিরে লাইন ধরে রেখে ভিতরে কয়েকজন মিলে মিশে শুধু ভোট দিচ্ছে, এই দৃশ্য সব কেন্দ্র গুলোতে পরিলক্ষিত হচ্ছে। পুলিশও সরকার সমর্থিত প্রার্থীদের সহযোগিতা করছে বলে ভোটারেরা অভিযোগ করছেন। সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট ডাকাতি হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন চসিক মেয়র প্রার্থী মনজুর আলম। ভোটাররা ভোট দিতে পারছে না। এইভাবে সব কেন্দ্রে নিলর্জ্জ ভোট দখলের মহোৎসব চলছে। এদিকে চান্দগাঁও এনএমসি স্কুলের ভোট কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় সব ভোটারদের বের করে দিয়ে সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, পুলিং অফিসারদের সামনে এনএমসি স্কুলের সভাপতি শওকত চৌধুরী ও সাতকানিয়ার উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নুরুল আবসার সাংবাদিক কার্ড বানিয়ে তার নেতৃত্বে কেন্দ্র দখল করে ভোট প্রদান করছেন বলে দেখা গেছে। এনএমসি স্কুলের প্রিসাইডিং অফিসার মোহাম্মদ আজমের সাথে কথা বললে তিনি জানান আমি উপরে জানিয়েছি। এখন আমাকে একটু স্বস্তিতে থাকতে দিন। অন্যদিকে দুপুর ১১ টার দিকে সাতকানিয়ার এমপি নদভী ৫০ জন ক্যাডার বাহিনী এনে ভোট প্রদান করে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। অন্যদিকে এনএমসি স্কুলের দায়িত্বরত পুলিশের অফিসার আনোয়ার, হাসান ও নজরুল নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। এহেন নির্লজ্জ ভোট ডাকাতি প্রত্যক্ষ করে বাংলাদেশ উন্নয়ন সাংবাদিক সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, আমরা সেই আশির দশকে ফিরে গেলাম।

Leave a Reply

%d bloggers like this: