চট্টগ্রামে নবনির্বাচিত মেয়রকে চিটাগাং চেম্বারের সংবর্ধনা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সদস্য আ জ ম নাছির উদ্দিন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন’র মেয়র এবং পরিচালকদ্বয় মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী ও মোহাম্মদ হাবিবুল হক কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় ১২ মে সন্ধ্যায় চেম্বারের পক্ষ থেকে ওয়ার্ল্ড ট্রেড Photo(Reception)সেন্টারস্থ কার্যালয়ে এক সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। এ সময় নবনির্বাচিত অন্যান্য কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলরদের সংবর্ধনা জানানো হয়। চেম্বার প্রেসিডেন্ট মাহবুুবুল আলম’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। চিটাগাং চেম্বারের প্রাক্তন সভাপতি এম. এ. লতিফ এমপি, সামশুল হক চৌধুরী এমপি, মোঃ দিদারুল আলম এমপি, ওয়াসিকা আয়েশা খান এমপি, চেম্বার সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ নুরুন নেওয়াজ সেলিম, সহ-সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ, জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, জেলা পরিষদ প্রশাসক এম. এ. ছালাম, চেম্বার পরিচালকবৃন্দ এম. এ. মোতালেব, মাহফুজুল হক শাহ, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী (আলমগীর), মোঃ অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন), মোঃ আমজাদ হোসেন চৌধুরী, মোঃ জহুরুল আলম, আলহাজ্ব মোঃ সিরাজুল ইসলাম, হাবিব মহিউদ্দিন, অঞ্জন শেখর দাশ, মোঃ রকিবুর রহমান (টুটুল), মোঃ আরিফ ইফতেখার, সাবেক সাংসদ মাজহারুল হক শাহ, চেম্বারের সাবেক সভাপতি ও পরিচালকবৃন্দ, কূটনৈতিকবৃন্দ, উর্ধ্বতন সরকারী কর্মকর্তা, সুশীল সমাজ ও সর্বস্তরের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথি ওবায়দুল কাদের এমপি বলেন-আগামী বিজয়ের মাসেই কর্ণফুলী টানেল নির্মাণের কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। এলক্ষ্যে শীঘ্রই চীনের প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রাম সফরে আসবেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিক নির্মাণ কাজের ঘোষণা করবেন। এছাড়া করেরহাট থেকে রামগড় হয়ে বান্দরবন পর্যন্ত ৪ লেনের কাজ এবং জাইকা’র অর্থায়নে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ৪ লেনের কাজ শীঘ্রই শুরু হতে যাচ্ছে বলে মন্ত্রী জানান। তিনি আরো জানান আগামীকাল (বুধবার) ২২০ কোটি টাকা ব্যয়ে শাহ আমানত সেতুর এ পাড়ে ৫ কি.মি. এবং অপর পাড়ে ৩ কি.মি. রাস্তার ৬ লেন করণের ঘোষণা দেয়া হবে। ওবায়দুল কাদের নবনির্বাচিত মেয়রকে প্রথমতঃ নগরীর জলাবদ্ধতা দূরীরকণ ও পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সংবর্ধিত মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন ৬০ লক্ষ নগরবাসীর প্রত্যাশা পূরণে তাঁর অঙ্গীকার, দায়িত্ববোধ এবং কতর্ব্যরে কথা উল্লেখ করেন। সিটি কর্পোরেশেন’র মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের পরিকল্পনাসমূহ শতভাগ স্বচ্ছতা, নিষ্ঠা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে বলে তিনি জানান। আ জ ম নাছির উদ্দিন স্বপেরœ মেগাসিটি গঠনে নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধি কার্যক্রম পরিচালনা করার ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যবসায়ীদের অবদান অত্যন্ত বেশী ও অনস্বীকার্য বলে মন্তব্য করে সব ধরনের চাঁদাবাজী বন্ধ করতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালানোর অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম ”গ্লোবাল সিটি, গ্লোবাল পোর্ট” এ স্লোগানকে সামনে রেখে চট্টগ্রামের উন্নয়নে ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে চাঁদাবাজী বন্ধ করা, ময়লা-আবর্জনা ব্যবস্থাপনা সমস্যা দূর করা, যত্রতত্র ও মাত্রাতিরিক্ত বিলবোর্ড অপসারণ, বেদখল হয়ে যাওয়া ফুটপাত পুনরুদ্ধার, হকারদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা করা, হলিডে মার্কেট, নাইট মার্কেট ইত্যাদি চালু করা, যানজট নিরসন, জলাবদ্ধতা দূর করার দাবী জানান। তিনি চট্টগ্রামের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার স্বার্থে সিটি কর্পোরেশন’র নেতৃত্বে চিটাগাং চেম্বার, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, ওয়াসা, সিডিএ, বিদ্যুৎ বিভাগ, কেজিডিসিএল, টিএন্ডটি ইত্যাদি সংস্থার সমন্বয়ে একটি কো-অর্ডিনেশন সেল গঠন করার প্রস্তাব করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*