চট্টগ্রামে জেণ্ডার ভিত্তিক সমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রচারণা কর্মশালা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৭ মে: চট্টগ্রামে জেণ্ডার ভিত্তিক সমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রচারণা কর্মশালা চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা সুলতান আহমদের সভাপতিত্বে আজ ১৭ মে বিকাল ৩ টায় চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন অফিস সভাকক্ষে স্বাস্থ্য শিক্ষা ব্যুরো, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়নে লাইফ সেন্টারের সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়। 17
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রামের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. অজয় কুমার দে। বিশেষ অতিথি ছিলেন যথাক্রমে মেডিকেল অফিসার ডা. নুরুল হায়দার ও সিভিল সার্জন অফিসের ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী। এ ছাড়া উক্ত এডভোকেসি সভায় বিভিন্ন স্তরের নারী ও পুরুষ উপস্থিত ছিলেন। বক্তাগণ বলেন নারী পুরুষের সামাজিক সম্পর্ক হচ্ছে জেন্ডার। শারীরিক পার্থক্য নিয়ে নারী ও পুরুষ জন্মগ্রহণ করে। কিন্তু সমাজ ও সংস্কৃতি যখন এই পার্থক্য এবং অন্যান্য কারণে তাদের18ওপর সামাজিক নানা অর্থ আরোপ করে পৃথক করে ফেলে তখনই তা হয়ে ওঠে জেন্ডার। তাই জেন্ডার এক ধরনের সামাজিক নির্মাণ। শারীরিক পার্থক্য জৈবিক বলে সেই পার্থক্য দূর করা যায় না। কিন্তু সামাজিক নির্মাণ বলে সামাজিক, সাংস্কৃতিক পার্থক্য দূর করে জেন্ডারবান্ধব সুন্দর পৃথিবী গড়ে তোলা সম্ভব। নারী ও পুরুষের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংজ্ঞাই জেন্ডার। সামাজিক লিঙ্গীয় বৈষম্য প্রকৃতির তৈরি নয়।
নারীকে শুধু গতানুগতিক কাজে, যেমন ভিজিডি, ডিজিএফ কার্ড ও বিধবা ভাতা ইত্যাদিতে না রেখে সেই সঙ্গে তথ্যপ্রযুক্তি খাতেও বরাদ্দ বৃদ্ধি করে নারীকে দক্ষ জনগোষ্ঠী হিসেবে কাজে লাগানো উচিত বলে বক্তারগণ মত ব্যক্ত করেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: