চট্টগ্রামে আওয়ামীলীগের শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

3
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি, সাবেক সিটি মেয়র আলহাজ্ব এ বিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, এদেশের স্বাধীনতা সূর্য যখন উদয়ের দ্বারপ্রান্তে, পশ্চিমা হানাদার বাহিনী বুঝতে পেরেছিল বাঙালির বিজয় সুনিশ্চিত। তখন বীর বাঙালি জাতিকে চিরতরে মেধাশূন্য করার ঘৃণ্য অপচেষ্টায় তাদের দোসর রাজাকার, আল বদর, আল শামস বাহিনীর সহযোগিতায় এদেশে বুদ্ধিজীবী নিধন শুরু করে। এখনো এ স্বাধীন বাংলাদেশে সেই অপশক্তি প্রতিনিয়ত চক্রান্ত, ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। জাতিকে মেধাশূন্য করতে বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ষড়যন্ত্র হয়েছে এই ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি আরো বলেন, বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার নানা অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, এই অপশক্তির সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে আমাদেরকে সম্মিলিত ভাবে সাংগঠনিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে এই সোনার বাংলাদেশে স্বাধীনতা বিরোধীর ঠাঁই নেই।
5চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, বাঙালী জাতির বিজয় ঢংকা যখন আকাশে-বাতাসে অনুরণিত হচ্ছে, পৃথিবীর বুকে  নতুন একটি মানচিত্র যখন নিজের জন্মবার্তা ঘোষণার প্রতীক্ষায়; সেই মুহুর্তে পাকিস্তানি সামরিক জান্তা অজেয় বাঙালির ভবিষ্যত প্রগতি,মেধা নিধনের মহোৎসবে মেতে উঠে। হত্যা করে এদেশের নানা শ্রেণি-পেশার লক্ষ বুদ্ধিজীবীকে। কিন্তু অদম্য,অনমনীয় বাঙালি জাতিকে পাকিস্তানি চক্র কখনো নিষ্পেষিত করে রাখতে পারেনি। আজ বিশ্ব দরবারে এই জাতি উন্নয়ন,অগ্রগতি সূচকে নতুন একটি দৃষ্টান্ত হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠছে। এই অর্জন,সাফল্যের ধারা সমুন্নত রাখতে আমাদেরকে সবকিছু ভুলে একই আদর্শের বেদীমূলে দাঁড়াতে হবে।
মহানগর আওয়ামী লীগ প্রচার সম্পাদক আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন ও আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু। উপস্থিত ছিলেন- সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী,অ্যাড.সুনীল কুমার সরকার, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আলহাজ্ব বদিউল আলম, এমএ রশিদ, নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান,চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী,অ্যাড.শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মসিউর রহমান চৌধুরী, আবদুল আহাদ, হাজী জহুর আহমদ,আবু তাহের,মহিলা সম্পাদিকা জোবাইরা নার্গিস খান, সহ-সম্পাদক শহীদুল আলম,জহর লাল হাজারী, কার্য নির্বাহী সদস্য আবুল মনসুর, বখতেয়ার উদ্দিন খান, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, কামাল উদ্দিন আহমদ, নুরুল আলম, শেখ শহীদুল আনোয়ার, কামরুল হাসান বুলু, গৌরাঙ্গ চন্দ্র ঘোষ, নুরুল আবছার মিয়া, অমল মিত্র, রোটারিয়ান মো.ইলিয়াছ, জাফর আলম চৌধুরী, মোহাব্বত আলী খান, নুরুল আমিন শান্তি, আবদুল লতিফ টিপু, থানা আওয়ামী লীগের ছিদ্দিক আলম,শাহাবুদ্দিন, এএসএম ইসলাম, মোমিনুল হক, আনসারুল হক,ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আতিকুর রহমান, ইউনুস কোম্পানি, শামসুল আলম, নুরুল আমিন কালু, শহীদ সোহরাওয়ার্দী,আবদুর রহমান,আবছার উদ্দিন চৌধুরী, আশফাক আহমদ,দিলদার খান দিলু, আবদুস ছবুর লিটন, আবদুল মান্নান,গিয়াস উদ্দিন জুয়েল, মহানগর যুবলীগের দেলোযার হোসেন খোকা, ফরিদ মাহমুদ, দিদারুল আলম দিদার, মাহাবুবুল হক সুমন, মহানগর ছাত্রলীগের ইমরান আহমেদ ইমু, নুরুল আজিম রণি প্রমুখ।
সভার শুরুর প্রাক্কালে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মরণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে সংগঠন নেতৃবৃন্দ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
আগামীকাল ১৫ ডিসেম্বর বিকেল ৩ টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আহুত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশিষ্ট সমাজবিজ্ঞানী,বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. অনুপম সেন। রাত ১১ টায় দারুল ফজল মার্কেট চত্বরে জমায়েত এবং ১২টা১মিনিটে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দলীয় পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। উক্ত কর্মসূচিতে মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের উপস্থিত থাকার জন্য সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন অনুরোধ জানিয়েছেন। আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসে দলীয় কার্যালয়ে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান এবং সকাল ৯ টায় এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বিজয় র‌্যালীতে যোগদান।

Leave a Reply

%d bloggers like this: