চট্টগ্রামের নবকুঁড়ির গুণীজন সম্বর্ধনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ড. অনুপম সেন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : বিশিষ্ট সমাজ বিজ্ঞানী ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়েরnobukuri উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেছেন কলম সৈনিক ও সংস্কৃতি কর্মীরা হলো দেশ ও জাতির গর্বিত সন্তান। দেশের সকল প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে এদের অনন্য সাধারণ ভূমিকা রয়েছে। দেশ ও জাতির জন্য তারা নিজেদের কর্মকে অন্যদের জন্য উৎসর্গ করেছেন। সামাজিক বিশৃঙ্খলাকে সুষ্ঠু সুশৃঙ্খল করতে যুগে যুগে শিল্পী, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিকর্মীরা কখনো পিছপা হয়নি। সৃজনশীল সমাজ গড়তে তাদের ভূমিকা অনেক বেশী। ড. অনুপম সেন গতকাল ৭ মে নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে নবকুঁড়ির সংগীত শিক্ষার্থীদের সনদ, পুরস্কার বিতরণ ও গুণীজন সংবর্ধনা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। নবকুঁড়ির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শিল্পী দীপংকর দেবনাথের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ও সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন দৈনিক আজাদীর সহকারী সম্পাদক অরুণ দাশগুপ্ত। মূখ্য আলোচক ছিলেন পেশাজীবি সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক রিয়াজ হায়দার, শ্রী শ্রী জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড.চন্দন তালুুকদার ও দৈনিক পূর্বকোনের সহ সম্পাদক কবি শাহিদ হাসান। অনুভূতি প্রকাশ করেন সংবর্ধিত অতিথি প্রত্যয় সাংস্কৃতিক সংসদের সাবেক সভাপতি ডা: এস. কে. দেব সজল, অনুশীলন সাংস্কৃতিক সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রকৌশলী প্রমেন বড়–য়া ও লোকজ সংস্কৃতি গবেষক কবি শামসুল আবেদীন। কবি আজিজ কাজলের বক্তব্যের পর অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ছোটন বড়ুয়া, প্রান্ত চৌধুরী, রোমেন চৌধুরী, মো: জাবেদ, অনিক দেব, আকাশ নাথ, সমাজকর্মী সন্তোষ ঘোষ, সুমন দাশ, জয় চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কৃতি শিক্ষার্থী ও সংবর্ধিতদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন প্রধান অতিথি প্রফেসর ড. অনুপম সেন। আলোচনার পূর্বে সংগীতানুষ্ঠানে বংশী শিল্পকলা একাডেমির শিক্ষার্থীরা এককগান, দলীয় গান, নৃত্য, গীটার, তবলা, লহরা, উচ্চাঙ্গ সংগীত, কবিতা আবৃত্তি পরিবেশিত হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: