চট্টগ্রামের দোহাজারী সদরে উচ্ছেদকৃত সড়কের জায়গায় দোকান নির্মাণের চেষ্টা

চন্দনাইশ সংবাদদাতা: চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক সংলগ্ন দোহাজারী বাজারের সম্মুখে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উচ্ছেদকৃত একটি মহল অস্থায়ীভাবে দোকান নির্মাণের চেষ্টা করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে দোকান নির্মাণ চেষ্টাকারীরা পালিয়ে যায়। sango river
গত ৮ নভেম্বর দিবাগত রাত ১১ টার সময় একটি প্রভাবশালী মহল দোহাজারী সদর এলাকায় ও হাজারী টাওয়ারের সামনে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উচ্ছেদকৃত জায়গায় অস্থায়ীভাবে দোকান নির্মাণের চেষ্টা করে। অস্থায়ী দোকান নির্মাণের লোকজন বাঁশের খুঁটি ও টিন নিয়ে এসে খালি জায়গার ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করতে দেখে। এ সময় স্থানীয়রা চন্দনাইশ পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অস্থায়ী দোকান নির্মাণে বাঁধা দেয় এবং বলে যে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কোনভাবেই দোকান নির্মাণ করা যাবে না। এ সময় প্রভাবশালী মহলের লোকজন ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করছিল বলে পুলিশকে জানায়। স্থানীয়দের অভিযোগ দিনের বেলা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার না করে গভীর রাতে কেন ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করবে বিষয়টি সত্য নয় বলে তারা দাবী করেন। সে সাথে সরকারের সড়ক ও জনপথ বিভাগের উচ্ছেদকৃত জায়গায় অস্থায়ীভাবে ৮/১০টি দোকান নির্মাণ করে অস্থায়ীভাবে ভাড়া দেয়ার জন্য ভাড়াটিয়াদের সাথে লক্ষ লক্ষ টাকা গোপনীয় চুক্তি হয়েছে বলে স্থানীয়ভাবে জানা যায়। এ ব্যাপারে স্থানীয় সচেতন মহল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সড়ক ও জনপথ বিভাগের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। অথচ চলতি বছরের প্রথম দিকে সড়ক ও জনপথ বিভাগ প্রাক্তন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইশরাত রেজার নেতৃত্বে জেলা প্রশাসক, চট্টগ্রামের নির্দেশে সড়ক ও জনপথ বিভাগের যৌথ উদ্যোগে এ অবৈধ দোকান উচ্ছেদ করা হয়। একটি মহল এ উচ্ছেদকৃত খালি জায়গায় পুনরায় অস্থায়ী দোকান নির্মাণ করে অবৈধভাবে দৈনিক ভাড়া দিয়ে টাকা আয়ের অপচেষ্টা চালিয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। এ ব্যাপারে তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: