চট্টগ্রামের জঙ্গি আস্তানা থেকে ৩ জঙ্গি আটক

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৮ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার: চট্টগ্রাম নগরীর আকবরশাহ থানার ১০ নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের মুকিম তালুকদার পাড়ার একটি জঙ্গি আস্তানা থেকে ৩ জঙ্গিকে আটক করেছে 11র‌্যাব। এসময় জঙ্গি আস্তানা থেকে বোমা ও বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে এ জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এর আগে বুধবার দিবাগত রাতে নগরীর এ কে খান মোড় থেকে অস্ত্রসহ দুই জনকে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সকালে এ জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে আরও ৩ জনকে আটক করা হয়।
আটক ৫ জঙ্গি নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ আল ইসলামী (হুজি) এর সদস্য বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-৭-এর পরিচালক লে. কর্নেল মিফতা উদ্দিন আহমেদ।
তিনি জানান, জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে ৩ জঙ্গিকে আটক করা হয়েছে। আস্তানা থেকে বোমা ও বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে বুধবার রাতে আরও ২জনকে আটক করা হয়। আটক ৫ জঙ্গিই নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হুজির সদস্য।
জঙ্গিদের আটকের পর এক প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের পরিচালক (গণমাধ্যম) মুফতি মাহমুদ খান জানান, আটক জঙ্গিদের মধ্যে বুধবার রাতে অস্ত্রসহ তাজুল ইসলাম ও নাজিম উদ্দিনকে আটক করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জঙ্গি আস্তানা থেকে নুরে আলম, হাফেজ আবু জার গিফারি ও ইফতিশাম আহমেদকে আটক করা হয়। এরা সবাই জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের শীর্ষনেতা মুফতি মাইনুল ইসলামের সহযোগী।
নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে এসে তারা বাসা ভাড়ার ব্যাপারে কথা বলে যায়। ডিসেম্বরের ১ তারিখে তারা বাসাটিতে ওঠে। বাড়ির মালিককে তারা বলেছিল বাসায় ওঠার কিছুদিনের মধ্যেই ফ্যামিলি নিয়ে আসবে। এর মধ্যে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব তাদের আটক করে। বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনা নিয়েই তারা এখানে এসেছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।
অভিযানে জঙ্গি আস্তানা থেকে ১০টি জিহাদি বই, বোমা তৈরির সরঞ্জাম, দুই ধরনের ৮টি বোমা, রাসায়নিক পদার্থ, ২টি পিস্তল ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মোবাইল ও ল্যাপটপ পুড়ে ফেলে জঙ্গিরা। পরে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে র‌্যাব। ১০ নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের এই বাড়িটির মালিক হাজী মনসুর আহমেদ। নাম প্রকাশ না করে এক প্রতিবেশী বলেন, বাড়িটিতে থাকা লোকজন দিনের বেলায় আসতেন না। তাঁদের রাতে দেখা যেত।

Leave a Reply

%d bloggers like this: