গোয়েন্দা নজরদারিতে জার্মানীর ৯০ টি মসজিদ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৪ মে: জার্মানিতে প্রায় ৯০টি মসজিদের উপর নজর রাখা হচ্ছে। জামার্নির অভ্যন্তরীণ গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান একথা জানিয়েছেন। তবে মুসলমান ও ধর্মীয় জঙ্গিদের একই চোখে দেখা উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।garmany
সোমবার দেশটির সরকারি এক টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন বিএফভি-র প্রধান হানস-গেওর্গ মাসেন। ৯০টির মধ্যে ‘বেশিরভাগই আরবি ভাষাভাষী’দের মসজিদ বলেও জানান তিনি।
মাসেন বলেন, নজরে থাকা মসজিদগুলোর অনেকগুলো ‘ব্যাকইয়ার্ড মসজিদ’, অর্থাৎ যেগুলো খোলা চোখে দেখে মসজিদ বলে বোঝা যায় না এবং যেখানে স্বশিক্ষিত ইমামরা অনুসারীদের মধ্যে ‘ঘৃণা মিশ্রিত’ বক্তব্য প্রচার করে ‘জিহাদ উসকে’ দেয়ার কাজে নিয়োজিত আছেন৷
তবে মুসলমান ও ধর্মীয় জঙ্গিদের একই চোখে দেখা উচিত নয় বলে কঠোর সতর্কবাণী উচ্চারণ করেছেন গোয়েন্দা প্রধান মাসেন। ‘জার্মানিতে আমাদের যেটা প্রয়োজন সেটা হচ্ছে জঙ্গিবাদ দমনের বিরুদ্ধে একটি জোট গড়ে তোলা৷ সেজন্য আমাদের মুসলমানদের (মধ্যপন্থি) প্রয়োজন’, বলেন তিনি৷
সাক্ষাৎকারে তিনি স্পষ্ট উল্লেখ করেন যে, ‘আমার সংস্থা ধর্মীয় ও রাজনৈতিক উগ্রবাদীদের নজরে রাখছে। আর আমরা যাদের উপর নজর রাখছি না তারা হলো জার্মানির মুসলমান সমাজ৷’
তথাকথিত ইসলামিক স্টেট জার্মানীর জন্য হুমকি কি না তা খুঁজে বের করতে সোমবার দেশটির পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা একত্র হয়েছিলেন৷ মাসেন বলেন, ‘আল-কায়েদা ও আইএস ছাড়া জার্মানিতে ইসলামি জঙ্গিবাদের প্রসার সম্ভব নয়।’
উল্লেখ্য, গত মাসে মাসেন স্বীকারে করেছিলেন যে, জার্মানিতে আইএস প্রবেশের সম্ভাবনার বিষয়টি অতীতে গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়নি৷ সূত্র: ডয়েচে ভেলে

Leave a Reply

%d bloggers like this: