গুলশান ও শোলাকিয়ায় নিহতদের স্মরণে আমজনতা খেলাফত পার্টির শোক সভা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১০ জুলাই: ঢাকার গুলশানের একটি হোটেলে এবং শোলাকিয়ায় ঈদ জামাতে জঙ্গীবাদীদের হামলায় নিহত ও আহত দেশী-বিদেশী নাগরিকদের স্মরণে আমজনতা খেলাফত পার্টির উদ্যোগে ১০ জুলাই রবিবার বিকাল ৪ টায় নগরীর আন্দরকিল্লাস্থ সংগঠনের shokকার্যালয়ে এক শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অ. আ. ম. হায়দার আলী চৌধুরী। মদিনা মিশন বাংলাদেশের চেয়ারম্যান এবং আমজনতা খেলাফত পার্টির নেতা মাওলানা নিজাম উদ্দিন আশরাফির সঞ্চালনায় এবং সংগঠনের কেন্দ্রীয় ভাইসচেয়ারম্যান শ্রী অমরেন্দ্র মল্লিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শোক সভায় প্রধান অতিথি বলেন, সম্প্রতি জঙ্গী গোষ্ঠী যেভাবে সারাদেশে পীর, সাধু, পুরোহিত ও দেশী-বিদেশী নাগরিকদের হত্যা করে যাচ্ছে তাতে আজ দেশ মহাসংকটে। অনতিবিলম্বে তাদের নির্মূল করতে জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন, আমজনতা খেলাফত পার্টি ক্ষমতায় গেলে এবং মদিনা সনদের ভিত্তিতে রাষ্ট্র পরিচালিত হলে জঙ্গীবাদ চিরতরে নির্মূল হবে এবং দেশে চির শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে বলে জানান। প্রধান অতিথি ঢাকার গুলশানে এবং শোলাকিয়ায় ঈদ জামাতে জঙ্গী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। বাংলাদেশে জঙ্গী উত্থান বিষয়ে প্রধান অতিথি বলেন, প্রশাসনের নির্লিপ্ততায় এবং বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে জঙ্গী গোষ্ঠী মাথাছাড়া দিয়ে ওঠছে। এসব জঙ্গীগোষ্ঠী দমনে সরকারকে আরো কঠোর হতে হবে। কারণ তাদের নির্মূল করা না গেলে অচিরেই দেশ জঙ্গীবাদীদের আস্তানায় পরিণত হতে পারে। প্রধান অতিথি নিহতদের স্মরণে গভীর শোক জ্ঞাপন ও আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন মেজর (অব.) মো. সিরাজুল আনোয়ার। এতে আরো বক্তব্য রাখেন শাহজাদা মো. মকছুদুল হক শাহ, বাবু তপন সরকার, রিপন কান্তি নাথ, বাবুল কান্তি চৌধুরী, মো. জাহাঙ্গির আলম, মো. কামাল উদ্দিন, খাদেম মো. ফরিদ প্রমুখ। সভাশেষে এক মিনিট নিহতের স্মরণে নিরবতা পালন করা হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: