খুলনার ১০ জেলায় ১৫ জানুয়ারী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কার্যালয়ে অবরুদ্ধ এবং দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তরের প্রতিবাদে খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে স্থানীয় ২০-দলীয় জোট। নগরীর কেডিঘোষ রোডে মঙ্গলবার দুপুরে ২০-দলীয় জোটের সমাবেশ থেকে এই হরতাল ঘোষণা করেন বিএনপি কেন্দ্রীয় সহ-2সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে ‘অবরুদ্ধ’ করে রাখার প্রতিবাদে ও ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের নামে ‘মিথ্যা’ মামলা দায়েরের অভিযোগে ১৫ জানুয়ারি জয়পুরহাট জেলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডাকা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে জয়পুরহাট শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে এক সমাবেশে এ হরতালের ডাক দেন জেলা ২০ দলীয় জোটের আহ্বায়ক ও জেলা বিএনপির সভাপতি মোজাহার আলী প্রধান। এদিকে, অবরোধ চলাকালে বিভিন্ন স্থানে নাশকতার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে জয়পুরহাট সদর থানা পুলিশ তিনজনকে আটক করেছেন। এছাড়া একই অভিযোগে পাঁচবিবি থানা পুলিশ বিএনপি-জামায়াতের দুই কর্মীকে আটক করেছে। জয়পুরহাটের সহকারী পুলিশ সুপার বিমান চন্দ্র কর্মকার আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 3সিলেটে জেলায় ১৫ জানুয়ারি সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে সিলেট ছাত্রদলের বিদ্রোহী গ্র“প। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ‘অবরুদ্ধ’ রাখা এবং জাতীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে এ হরতাল ডেকেছে দলটি। সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি প্রত্যাখ্যানকারী বিদ্রোহী নেতারা মঙ্গলবার এক বিবৃতির মাধ্যমে এ হরতাল আহ্বান করেন। সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এখলাছুর রহমান মুন্নার পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এছাড়া হরতালের আহ্বানে বিবৃতি দিয়েছেন ছাত্রদল সিলেট জেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাফেক মাহবুব, ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট জেলার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল মুরশেদ, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক রেজাউল করিম নাচন, ছাত্রদল নেতা অর্জুন ঘোষ, সাবেক সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক লোকমান আহমদ। খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় ১৫ জানুয়ারি সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে বিএনপি। মঙ্গলবার দুপুর দেড়টায় নগরীর কে ডি ঘোষ রোডে বিএনপি কার্যালয়ে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। এর আগে বিএনপি কার্যালয়ে ২০khulna দলীয় জোটের এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপি চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় জোট নেত্রী খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে রাখার প্রতিবাদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের, চেয়াপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, কেন্দ্রীয় সহ-দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীমসহ আটক সকল নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি ও গণ গ্রেফতার বন্ধ ও খালেদা জিয়া ঘোষিত ৭ দফা মেনে নেওয়ার দাবিতে এ হরতালের ডাক দেওয়া হয়। হরতাল কর্মসূচি সফল করতে বিএনপিসহ জোট নেতাকর্মীদেরকে রাজপথে দৃঢ় অবস্থান নিয়ে কর্মসূচি সফল করার আহবান জানান মঞ্জু।

Leave a Reply

%d bloggers like this: