খাজা আজমেরী স্কুলের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মহিউদ্দিন চৌধুরী

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : নগরীর আগ্রাবাদে প্রতিষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খাজা আজমেরী উচ্চ বিদ্যালয় ও কিন্ডার গার্টেন স্কুলের ফলাফল ঘোষণা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি সাবেক সিটি মেয়র আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, একটি শিক্ষিত জাতি গঠনে আমাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। প্রকৃত সুশিক্ষা জাতির অর্থনৈতিক মুক্তির প্রধান সোপান। এই জন্য আমাদের সন্তানদের শিক্ষা-দীক্ষায় সবধরনের পরিচর্যা করতে হবে। DSC_4205তিনি আজ সকালে স্কুল প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, একটি শিক্ষিত জাতিকে কখনো বোকা বানানো যায় না। এই অঞ্চলটি পারিবারিকভাবে অর্থনৈতিক দিক থেকে সমৃদ্ধ। কিন্তু তাদের সন্তানরা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত। এই প্রতিষ্ঠানটি এলাকার শিক্ষা চেতনার বাতিঘর। এই প্রতিষ্ঠানটি উত্তোরত্তর সমৃদ্ধির জন্য শিক্ষক, অভিভাবক ও সমাজবেসীদের এগিয়ে আসতে হবে। তিনি উল্লেখ করেন আমি শিক্ষাকে অগ্রাধীকার দিয়েছি। মেয়র থাকাকালে শিক্ষা ক্ষেত্রে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অগ্রগতিকে শীর্ষে পৌঁছিয়েছি। আমার প্রতিষ্ঠিত প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় আজ দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এখানে বার হাজার শিক্ষার্থী উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ করছেন। আমি কথা দিচ্ছি এখান থেকে যারা মেধা ও জ্ঞানে নিজেদেরকে প্রকাশ করবে তাদেরকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সাশ্রয় মূল্যে পড়ার সুযোগ করে দেব। তিনি আরো ঘোষণা করেন, কোন ধনবান ব্যক্তি যদি আমাকে একটি জমি দান করেন, আমি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলব। এটা আমার জীবনের স্বপ্ন। এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমি যা কিছু করেছি তার ফলে চট্টগ্রাম আজ শিক্ষা প্রযুক্তি ও বিজ্ঞানে অনেক এগিয়ে গেছে। এই সাফল্যকে অবশ্যই আপনারা ধরে রাখবেন। বিশেষ অতিথির ভাষণে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম বাহাদুর বলেন, আমাদের পারিবারিক জমিতে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠান একটি শিক্ষার আলোক বর্তিকা হয়ে উঠেছে আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর আন্তরিক সহযোগিতায়। এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একদিন কলেজ ও বিশ্বদ্যালয় পর্যায়ে উন্নীত হবে এটাই আমার সাধনা। উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা চেমন আরা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানে স্বাগতিক বক্তব্য রাখেন খাজা আজমীরি কিন্ডার গার্টেনের অধ্যক্ষ মনিুরুজ্জামান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শিক্ষক ফারজান পারভীন ও মোঃ মহিবুল্লা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*