ক্রিকেটার রুবেলের জামিন লাভ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : নারী নির্যাতন আইনে চিত্রনায়িকা নাজনীন আকতার হ্যাপীর দায়ের করা মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনকে জামিন দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ায় এই ক্রিকেটারের বিশ্বকাপ যাত্রা শঙ্কার মধ্যে পড়ে গিয়েছিলো। আজ রোববার সকালে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিনrubel আবেদন করেন রুবেলের আইনজীবীরা। পরে শুনানি শেষে এ আদেশ দেন আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ইমরুল কায়েস।রুবেলের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মনিরুজ্জামান আসাদ । অন্যদিকে হ্যাপীর পক্ষে ছিলেন তুহীন হাওলাদার। গত ১৩ ডিসেম্বর রুবেলের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন আইনে মিরপুর থানায় মামলা করেন হ্যাপী, যাতে ‘বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক’ গড়ার অভিযোগ আনা হয়। তবে হ্যাপীর অভিযোগ নাকচ করে এই ক্রিকেটার বলে আসছেন, এই তরুণী তাঁকে ‘ব্ল্যাকমেইল’ করছেন। রুবেল ১৫ ডিসেম্বর হাইকোর্টে হাজির হয়ে আগাম জামিন চাইলে বিচারপতি সৈয়দ এ বি মাহমুদুল হক ও বিচারপতি মো. আকরাম হোসেন চৌধুরীর বেঞ্চ চার সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করে। ওই জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ার তিন দিন আগেই গত ৮ জানুয়ারি রুবেল ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু শুনানি শেষে মহানগর হাকিম মোহাম্মদ আনোয়ার ছাদাতPHOTO_20150105110123 জামিন নাকচ করে রুবেলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। শনিবার কারাগারে গিয়ে রুবেলকে দেখে এসে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট পরিচালনা কমিটির সভাপতি আকরাম খান জানান, এই পেসার মানসিকভাবে কিছুটা ভেঙে পড়েছেন। এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নাজমুল হাসান জানিয়েছেন, রুবেল হোসেনকে বিশ্বকাপ দলে রাখা নিয়ে দ্রুতই সিদ্ধান্ত নেবেন তাঁরা। আসছে ফেব্র“য়ারিতে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলতে জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে রওনা হতে পারে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। রুবেলকে জাতীয় দল ও বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেয়ার জন্য হ্যাপী হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করলেও আদালত তা খারিজ করে দেয়। এর বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলেও ইতোমধ্যে ঘোষণা দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। হ্যাপী নারী নির্যাতন আইনে মামলা করায় পুলিশের তত্ত্বাবধানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়। ওই পরীক্ষার প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি হ্যাপীকে জোর করে যৌন সম্পর্কে বাধ্য করা হয়েছে, এমন কোনো আলামত চিকিৎসকরা পাননি। এদিকে হ্যাপীর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক মো. মাসুদ পারভেজের আবেদনে গত ৩১ ডিসেম্বর ঢাকার একটি আদালত রুবেলের ডিএনএ পরীক্ষারও অনুমতি দিয়েছে। গত ১৩ ডিসেম্বর নবাগত অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপি ধর্ষণের অভিযোগ এনে রাজধানীর মিরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন ৯/১ ধারায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অভিযোগ করা হয়, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে রুবেল তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। এরপর রুবেল অন্য নারীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলার পর তাঁকে এড়িয়ে চলায় তিনি আইনের আশ্রয় নেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: