কোতোয়ালী থানা ছাত্রলীগের নাসিম আহমদ সোহেলের ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী পালন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৯ মার্চ ২০১৯ ইংরেজী, শুক্রবার: বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কোতোয়ালী থানা শাখার উদ্যোগে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় বিবিএ অধ্যায়নরত মেধাবী ছাত্র ও চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের কার্যনিবাহী সদস্য শহীদ নাসিম আহমদ সোহেলের ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচি নেওয়া হয়। সকালে কালো ব্যাচ ধারণ, মরহুমের কবর জেয়ারত, কোতোয়ালী থানা ছাত্রলীগের উদ্যোগে স্মরণ সভা নগরীর জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে বিকাল ৪ টায় কোতোয়ালী থানা ছাত্র লীগ নেতা আদিত্য দাশ জয় এর সভাপতিত্বে ও ইমদাদুর রহমান রিয়াদ এর পরিচালনায় স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সরকারী কমার্স কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হেলাল উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ইয়াছির আরাফাত, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোঃ সালাউদ্দিন, কমার্স কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মকসুদ আলী, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মোঃ হেলাল উদ্দীন, সাবেক ছাত্রনেতা আসিবুর আলম আসিফ, সৈয়দ গিয়াস উদ্দিন, মঈনুল আলম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক রাশেদুল আরেফিন জিসান, এস.এম. কামাল উদ্দিন, মহানগর ছাত্রলীগের উপ-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক নাছির উদ্দিন কুতুবী, মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ওসমান উদ্দীন, সদস্য মোস্তফা কামাল, রিদুয়ানুল কবির সজিব, জালাল আহমদ রানা, থানা ছাত্রলীগ নেতা মোঃ সালাউদ্দিন, সাদ্দাম হোসেন, শোভন দত্ত, পলাশ দত্ত, মোস্তফা রেজা আয়নাল, কৌশিক মজুমদার, পলাশ দত্ত, ইন্দ্রজিৎ ভট্টাচার্য, নকিব আহমদ রাহাদ। সভায় উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইসমাইল হোসেন, সোহেল, সৈয়দ গোলামুর রহমান, রফিকুল আলম, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা আলী আজম সুজন, আবদুল ওয়াজেদ, জীবন নয়ন, আল হাসান সামী, জাবেদুল হক অর্ণব, রায়হান সবুজ, রেজা হাসান, মোঃ রিপন দে, অমি চক্রবর্ত্তী, অন্তু চৌধুরী, মোঃ রাব্বি হোসেন আদি, উত্তম লাল প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, ২০১৬ সালে ২৯শে মার্চ প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রকাশ্য দিবালোকে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা নাসিম আহমদ সোহেলকে চুরিকাঘাত করে হত্যা করে। যা কলেজ ক্যাম্পাসের সিসি ক্যামেরায় ভিডিও ফুটেজে সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত হয়। গত তিনবছর পরও হত্যাকারী সবাইকে গ্রেফতার না করায় ছাত্র সমাজের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। ভাই হত্যার যে দুঃখ সহপাঠীরা বয়ে বেড়াচ্ছে তা আজও সঠিক বিচার না হওয়ায় ক্ষুব্ধ প্রকাশ করে। এখনো হত্যাকারীরা প্রকাশ্যে দিবালোকে ঘুরে বেড়ায়। প্রশাসনের কাছে আবেদন তাদের গ্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্ত শাস্তির দাবি জানান। হত্যাকারীদের সুষ্ঠ বিচার না হলে ছাত্র সমাজ আন্দোলনের মাধ্যমে আদায় করা হবে। তাই অচিরেই হত্যাকারীদের সঠিক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

Leave a Reply

%d bloggers like this: