কী কী কাজে লবণের ব্যবহার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৩০ নভেম্বর: লবণ ছাড়া আমরা কোনো রান্না কল্পনা করতে পারি না। কারণ যেকোন রান্নার স্বাদ বাড়াতে লবণের জুড়ি নেই। তবে রান্নার কাজ ছাড়াও আমরা আরো অনেক কাজে লবণের ব্যাপক ব্যবহার করতে পারি। অন্যান্য কী কী কাজে লবণের ব্যবহার হয় তা হলো:
শাকসবজি ধৌতকরণে: লবণ অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদান সমৃদ্ধ হওয়ায় শাকসবজি পরিষ্কার করে ধোয়ার কাজে ভাল ভূমিকা রাখে।salt
কৃত্রিম ফুলগাছ পরিষ্কার: একটি ব্যাগের মধ্যে ফুলগাছটি রাখুন। তারপর এক কাপ লবণ দিয়ে ভালভাবে ঝাঁকুনি দিন। এটি ফুলগাছের ময়লা ও ধুলা দূর করতে সাহায্য করবে।
দাগ দূর করা: লবণ ফল ও শাকসবজির দাগ দূর করে। আপনার হাতের তালুতে লবণ ও পানি মিশিয়ে নিন তারপর স্টেইনলেস স্টিলের ওপর হাত বুলিয়ে দিন। দেখবেন, দাগ ধীরে ধীরে বিবর্ণ হয়ে যাবে।
ধাতব পদার্থ পরিষ্কার: তামা এবং রুপা ঝকঝকে করতে লবণ মিশ্রণ ও পোড়া কয়লা খুব কাজে দেয়।
আসবাবপত্র পরিষ্কার: লবণের মিশ্রণ এবং গরম পানি একসঙ্গে মিশিয়ে আসবাবপত্র পরিষ্কার করুন। তারপর শুকনো কাপড় দিয়ে আসবাবপত্রগুলো মুছে ফেলুন। দেখবেন পুরোনো আসবাবপত্র নতুনের মত দেখাবে।
পিঁপড়া যন্ত্রণা থেকে মুক্তি: পিঁপড়ার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে চাইলে নর্দমা, রান্নাঘর এবং আশপাশের জায়গাগুলোতে মাঝে মাঝে লবণের মিশ্রণ ছিঁটিয়ে দিতে পারেন।
আগাছামুক্ত করতে: বাগানের আগাছামুক্ত করতে লবণ ব্যবহার করতে পারেন। আগাছাগুলো উপড়ে লবণ ছিটিয়ে দিন। দেখবেন পুনরায় আগাছাগুলো আর জন্মাচ্ছে না।
দুধ তাজা রাখতে: কথাটি অবিশ্বাস্য মনে হতে পারে। এক চিমটি লবণ দুধের ওপর ছিটিয়ে দিন। এটি দুধকে নষ্ট হওয়া থেকে রক্ষা করবে।
দুর্গন্ধ রোধ করতে: জুতার তাক, টয়লেটে, সেলফ এবং আলমিরাতে লবণ রাখতে পারেন। তাহলে এসব জায়গা থেকে আর দুর্গন্ধ ছড়াবে না।
দাঁত শক্ত রাখতে: লবণের মিশ্রণ টুথপেস্ট বা সরিষা তেলের সঙ্গে মেশান। তারপর দাঁত এবং মাড়িতে ব্যবহার করুন। লবণের মিশ্রণ আপনার দাঁতকে শক্তিশালী এবং রোগ থেকে রক্ষা করবে। সূত্র: শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply

%d bloggers like this: