কীটনাশক শুক্রাণুর ক্ষতি করে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৬ নভেম্বর: অর্গানোক্লোরাইন কীটনাশক বা ডিডিটি কিশোরদের শুক্রাণুর ক্ষতি করে। এমনকি পরবর্তী সময়ে প্রজনন ক্ষমতাও নষ্ট করে দিতে পারে। মার্কিন এক গবেষণায় এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

Pesticide in rice field

Pesticide in rice field

গবেষণার প্রধান লেখিকা জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর মেলিসা পেরি বলেন, এই ধরনের ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থের সংস্পর্শে এলে কিশোরদের প্রজনন ক্ষমতায় সমস্যা সৃষ্টি হয়।
মিস পেরির নেতৃত্বে একদল গবেষক উত্তর অ্যাটলান্টিক ফারোই দ্বীপের ৯০ জন পুরুষের শুক্রাণু ও রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা চালান।
দ্বীপের এই নাগরিকরা পাইলট তিমি ও সিলের মাংসসহ বিভিন্ন সামুদ্রিক খাবার খান। যাতে উচ্চমাত্রায় অর্গানোক্লোরাইন দূষণ, পলিক্লোরিনেটেড বিপহেনিলস বা পিসিবিএস রয়েছে। যা ডিডিটি কীটনাশকের প্রধান পদার্থ।
গবেষণায় ১৪ থেকে ৩৩ বছর বয়সী লোকদের কাছ রক্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরবর্তী সময়ে তাদের রক্তে অর্গানোক্লোরাইনের কীটনাশকের পরিমাণ মাপা হয়। অস্বাভাবিক শুক্রাণু ডিসোমি আছে কিনা মাপার জন্য স্পার্ম ইমেজিং পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। এই ধরনের শুক্রাণু কোষ ক্রোমোজোমের অস্বাভাবিকতা তৈরি করা হয়।
গবেষক দল কিশোর ও প্রাপ্ত বয়স্কদের রক্তে উচ্চ মাত্রায় ডিডিটি এবং পিসিবিএস শনাক্ত করেন। যাতে উল্লেখযোগ্যভাবে ডিসমি শুক্রাণু পাওয়া যায়।
১৯৬০ সালের দিকে যুক্তরাষ্ট্রে অর্গানোক্লোরাইন কীটনাশক বা ডিডিটি ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা হতো। এখন এই কীটনাশক ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।
এই ধরনের কীটনাশক এখনও বিশ্বের অনেক গ্রীষ্মমণ্ডলীয় দেশে ব্যবহার করা হয়। পানি ও মাটির জন্য এই ধরনের কীটনাশক খুবই ক্ষতিকর। সূত্র: ঢাকাটাইমস

Leave a Reply

%d bloggers like this: