কিছু খাবার একত্রে নয় বরং আলাদা করেই খাওয়া উত্তম

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ২৫ জানুয়ারি,২০১৭

আমরা খাবারের স্বাদ বাড়ানোর জন্য প্রায়ই কয়েক ধরনের খাবার একত্রিত করে থাকি। কিন্তু কিছু খাবার একত্রে নয় বরং আলাদা করেই খাওয়ার নিয়ম।

এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন কিছু খাবারের তালিকা। নিরাপদ থাকার জন্য এবং খাবারের পুষ্টিগুণ গ্রহণ করতে এ খাবারগুলোর মিশ্রণ এড়িয়ে চলা উচিত।
১. দুধ-কলা
দুধ ও কলা একত্রে খাওয়া হলে তা পেটের ওপর প্রচন্ড চাপ সৃষ্টি করে। পেটে দুধ ও কলা একত্রে প্রবেশ করলে তাতে দুধ হজমে সমস্যা হয়। ফলে পেটে গন্ডগোলের আশঙ্কা থাকে। তবে আপনি যদি উভয় খাবার আধ ঘণ্টার ব্যবধানে খান তাহলে এ ধরনের সমস্যা এড়ানো সম্ভব।
২. পনিরের সঙ্গে কোমল পানীয়
কোমল পানীয় কিংবা কার্বনেটেড পানীয়তে রয়েছে উচ্চমাত্রায় ফ্রুকটোস। ফলে প্রায়ই তা হজমে সমস্যা হয় এবং পেটের গন্ডগোল বাধায়। অন্যদিকে পনিরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট। বেশিমাত্রায় পনির খাওয়া ক্ষতিকর। আর পনির ও কোমল পানীয় একত্রে স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর হয়ে ওঠে।
৩. রান্না খাবারের সঙ্গে ফল
অনেকেই দুপুরের কিংবা রাতের খাবার খাওয়ার পর ফল খান। যদিও এতে দেহের পক্ষে ফলের পুষ্টি গ্রহণ করা কঠিন হয়ে পড়ে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ফল খাওয়ার আদর্শ সময় হলো মূল খাবার খাওয়ার এক ঘণ্টা আগে। তবে মূল খাবার খাওয়ার আধ ঘণ্টা পর ফল খেলেও খুব একটা সমস্যা হবে না।
৪. খাবারের সঙ্গে পানি
খাবার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে গ্লাস ভরে পানি পান করার অভ্যাস প্রায় সবারই রয়েছে। যদিও এটি মোটেই ভালো অভ্যাস নয়। কারণ খাবারগুলো পেটে পানির সঙ্গে মিশে হজমে গন্ডগোল ঘটায় এবং খাবারের অনেক পুষ্টি দেহের পক্ষে গ্রহণ করা সম্ভব হয় না। অবশ্য খাবারের আধ ঘণ্টা পর পানি খেলে কোনো সমস্যা নেই।
৫. খাওয়ার পর চা
অনেকেরই খাবারের পর পরই চা পানের অভ্যাস রয়েছে। কিন্তু চায়ের কিছু উপাদান রয়েছে যা দেহকে খাবারের পুষ্টি সংগ্রহ করতে বাধা দেয়। এর ট্যানিক এসিড দেহকে আয়রন ও প্রোটিনের মতো গুরুত্বপূর্ণ খাদ্যপ্রাণও গ্রহণ করতে বাধা দেয়। আর এ কারণে খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চা পান করা কোনোভাবেই উচিত নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*