কারাগারে যাবার একদিনের মাথায় জামিন পেল তাজরিনের মালিক

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : বহুল আলোচিত তাজরিন ফ্যাশনের মালিক মো. দেলোয়ার হোসেন এর জামিন মিলেছে। প্রতারণার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় কারাগারে যাবার একদিনের মাথায় সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম সৈয়দ মাশফিকুল ইসলাম দেলোয়ারের জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে রোববার আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এদিকে দেলোয়ারের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল বলেন, দেলোয়ার হোসেন মামলার বাদিকে অর্থ পরিশোধ বাবদ চেক প্রদান করেছেন। এরপর বাদিপক্ষ আর জামিনে আপত্তি জানাননি। বাদির সঙ্গে আপোষ হওয়ায় এবং মামলার ধারা জামিনযোগ্য হওয়ায় আদালত তাকে জামিন দিয়েছেন। আদালত সূত্রে জানা গেছে, কেডিএস গ্র“পের প্রতিষ্ঠান কেডিএস এক্সেসরিজ লিমিটেডের কাছ থেকে ২০১০-২০১১ অর্থবছরে ৪৪ লক্ষ ৭৩ হাজার ৭২০ টাকার এক্সেসরিজ পণ্য কিনেছিল তাজরিন ফ্যাশন। কিন্তু গত চার বছরেও ওই অর্থ পরিশোধ করেনি তাজরিন ফ্যাশন। টাকা পরিশোধ নিয়ে কেডিএস এক্সেসরিজকে বিভিন্ন হয়রানি করতে থাকেন তাজরিনের মালিক। এ ঘটনায় ২০১৩ সালের শেষদিকে আদালতে দণ্ডবিধির ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় দেলোয়ারের বিরুদ্ধে মামলা করেন কেডিএস গ্র“পের লিগ্যাল এসেটস বিভাগের সহকারি ব্যবস্থাপক অ্যাডভোকেট শিমুল সেন। ওই মামলায় সম্প্রতি উচ্চ আদালত থেকে চার সপ্তাহের জামিন নেন দেলোয়ার। জামিনের মেয়াদ শেষে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের জন্য আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। উচ্চ আদালতের নির্দেশে দেলোয়ার হোসেন রোববার মহানগর হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণের পর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক। মামলাটি বর্তমানে অভিযোগ গঠনের পর্যায়ে আছে বলে জানান অ্যাডভোকেট শিমুল সেন।
এর আগে এই অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় রোববার দেলোয়ারকে কারাগারে পাঠিয়েছিলেন আদালত। মামলার বাদি কেডিএস গ্র“পের  লিগ্যাল এসেটস বিভাগের সহকারি ব্যবস্থাপক অ্যাডভোকেট শিমুল সেন বলেন, জানুয়ারি, ফেব্র“য়ারি, মার্চ ও এপ্রিলে পরিশোধযোগ্য চারটি চেক তাজরিনের পক্ষ থেকে আমাকে দেয়া হয়েছে। চেক পাওয়ায় আমি আর জামিনে আপত্তি করিনি। তিনি জানান, জামিন হলেও মামলা চালাবে কেডিএস। এপ্রিলে সমুদয় টাকা পরিশোধ হলে তবে মামলা তুলে নেবে। আদালত আগামী ২৬ ডিসেম্বর মামলার পরবর্তী সময় নির্ধারণ করেছেন বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*