এরশাদ বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত: মুসলিম লীগ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৫ মে ২০১৭, শুক্রবার: এক সভায় বাংলাদেশ মুসলিম লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এম এ আজিজ বলেন, হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ তিনি বর্তমানে রাজনীতি করছেন, সুবিধা ভোগ করার জন্যে এবং জীবন রক্ষার জন্যে। তাই তিনি জাতীয় সমস্যা বিসর্জন দিয়েছেন। তিনি ৯ বছর ধরে রাষ্ট্রপতি ছিলেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হয়ে তিনি সাবেক ৯ বছর কালের রাষ্ট্রপতি শব্দটা বিসর্জন দিয়েছেন। তিনি সেজন্যে প্রধানমন্ত্র্রীর বিশেষ দূতের চাকরী নিয়েছেন। এম এ আজিজ আরো বলেন, এরশাদ একটা রাজনৈতিক জোট গঠন করতে চাইছেন। কোন দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক দল এরশাদ’র সাথে জোট গঠন করবেন বলে মনে হয় না। কারণ তাঁর দল জাতীয় পার্টি বর্তমান সরকারের পার্টনার, অন্যদিকে সংসদের গৃহপালিত বিরোধীদল। তিনি (এরশাদ) রাষ্ট্রীয় অর্থ তিন দিকে ভোগ করছেন। যেমন বিদায়ী সেনাপ্রধান হিসেবে তিনি পেনশন ভোগ করছেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি হিসেবে তিনি সরকারী অর্থ ভোগ করছেন, বর্তমানে তিনি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে সরকারী কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা ভোগ করছেন। বর্তমানে তিনি নতুন কৌশল নিয়েছেন। তিনি ইসলামী দল গুলো নিয়ে জোট গঠন করার পরিকল্পনা নিয়েছেন। এ ব্যক্তি যে কোন সময় জোট থেকে বের হয়ে চৌদ্দ দলে ভিড়তে পারেন। অতএব, তার উপর বিশ্বাস রাখাটা সঠিক হবে না। কারণ তিনি (এরশাদ) সকালে এক কথা বলেন, বিকেলে অন্য কথা বলেন। কারণ তিনি বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত চট্টগ্রাম মহানগর মুসলিম লীগের এক আলোচনা সভা আজ ৫ মে সকাল ১০ টায় ১৬০, আন্দরকিল্লা অস্থায়ী কার্যালয়ে মহানগর মুসলিম লীগের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম মহানগর মুসলিম লীগের আহবায়ক কাজী নাজমুল হাসান সেলিম। সভায় বাংলাদেশ মুসলিম লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এম এ আজিজ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উপরোক্ত বক্তব্য তুলে ধরেন। সভায় অন্যন্যাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ মুসলিম লীগ নেতা অধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী, যুগ্ম আহবায়ক মুহাম্মদ শাহজাহান, মহানগর মুসলিম লীগ নেতা শফী আল নূরী, মাওলানা ইদ্রিস বিন নূরী, উত্তর জেলা মুসলিম লীগের সহ-সভাপতি আবদুল মোনাফ, প্রচার সম্পাদক রেজাউল করিম রিপন, সাবেক কমিশনার খুরশিদ আলম, মুসলিম লীগ নেতা এম এ মোমিন, গোলাম মোস্তফা বাবুল প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*