এবার নিউজিল্যান্ডে ইসলাম গ্রহণের হিড়িক!

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৩০ মার্চ ২০১৯ ইংরেজী, শনিবার: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে হামলা চালিয়ে ৫০ জন মুসল্লিকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। কিন্তু তাতে যে সে ইসলাম ও মুসলমানদের বিন্দুমাত্র ক্ষতি করতে পারেনি তার প্রমাণ পাওয়া গেছে গত দুই সপ্তাহ জুড়ে। এবার খবর পাওয়া গেছে ইসলাম গ্রহণ করেছেন নিউজিল্যান্ডের রাগবি খেলোয়াড় সনি বিল উইলিয়ামসের মা এবং তার বন্ধু।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সনি বিল উইলিয়ামসের পরিচিত ব্রিটিশ জাজ কণ্ঠশিল্পী জন ফন্টেইন। তিনি টুইটারে লিখেন, ‘আল্লাহু আকবার! সনি বিল উইলিয়ামসের মা ইসলাম গ্রহণ করেছেন। এছাড়া ওফা তুঙ্গাফাসিও ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। আল্লাহ তাদের পক্ষে এটিকে সহজ করে দিন এবং তাদের জান্নাতুল ফিরদাউস দান করুন।’
নিউজিল্যান্ডের সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা গেছে, ক্রাইস্টচার্চ হামলার দুই সপ্তাহের কম সময়ের ব্যবধানে দেশটির রাগবি ইউনিয়নের ফুটবলার সনি বিল উইলিয়ামের মা লি উইলিয়াম ইসলামধর্ম গ্রহণ করেন। সনির টিমমেট ও খেলোয়াড় ওফা তুঙ্গাফাসিও ইসলাম গ্রহণ করেন। জানা গেছে, ২৩ মার্চ নিউজিল্যান্ডের একটি হাসপাতালে আহতদের দেখতে গিয়ে ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হন ওফা তুঙ্গাফাসি। পরে তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন। একই দিন সনি বিল উইলিয়ামসের মা-ও ইসলাম গ্রহণ করেন। ওফা বলেন, ‘হাসপাতালে মুসলিম ভাইদের দেখার অভিজ্ঞতা ছিল অন্যরকম। আমি তাদের থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছি।’ মেইল অনলাইন নামের এক পত্রিকার প্রতিবেদনে জিম্বাবুয়ে বংশোদ্ভূত ইমাম শেখ সাজিদ উমরের উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়। সাজিদ উমর তার টুইটে বলেন, এই মাত্র একটি খুশির খবর এলো। আমাদের ভাই সনি বিল উইলিয়ামের মা ইসলাম গ্রহণ করেছেন। একই সময় তার বেস্ট ফ্রেন্ড ও টিমমেটও ইসলাম গ্রহণ করেছে। সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর। তিনিই সবচেয়ে দয়ালু। অনেক দূরে থাকা সত্ত্বেও আমি তার ওপর খুবই খুশি হয়েছি। আল্লাহ তাকে আরো সম্মানিত করুন। সনি ও তার মা লি একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেন। তাতে দেখা যাচ্ছে লি একটি সাদা পোশাক পরিধান করে আছেন। তাতে সনি ও তার বন্ধুও উপস্থিত রয়েছেন। উল্লেখ্য, সনি উইলিয়াম এক যুগ আগেই ইসলামধর্ম গ্রহণ করেছিলেন। এতদিন পর তার মা ও বন্ধুও ইসলাম গ্রহণ করলেন। ক্রাইস্টচার্চ হামলার পর সনি হাসপাতালে আহতদের দেখতে গিয়েছিলেন। এরপর তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি অশ্রুভরা বার্তা পোস্ট করেছিলেন। ঘটনার পর সনি বিল উইলিয়ামস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখেন, ‘আমি খবরটি যখন শুনি, তখন খুবই কষ্ট পাই। সে সময় আমার অনুভূতি কতটুকু কষ্টদায়ক ছিল তা শব্দ দিয়ে বুঝাতে পারবো না।’
সনি বিল উইলিয়াম
৩ আগস্ট ১৯৮৫ তে জন্মগ্রহণ করা সনি নিউজিল্যান্ডের একজন তারকা রাগবি খেলোয়াড় ও পেশাদার হেভিওয়েট মুষ্টিযোদ্ধা। তিনি দুইবার রাগবি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য ছিলেন। ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই মুসলমানদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*