এবার আনসার আল ইসলামের হিটলিস্টে ৩৪ জন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১২ নভেম্বর: নতুন করে আবারও তালিকা প্রকাশ করেছে আনসার আল ইসলাম ও আলকায়দা ভারতীয় উপমহাদেশ নামের এই সংগঠনটি। ‘কে হবে আমাদের পরবর্তী টার্গেট’ শিরোনামে প্রকাশিত হিটলিস্টে ৩৪ জনের নাম রয়েছে। যারা লেখক, কবি, সাহিত্যিক, নাট্যকার, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, আইনজীবী, সাংবাদিক, রাজনীতিক কর্মী, চিকিৎসক, ব্লগার ও গণজাগরণ মঞ্চের সক্রিয় কর্মী। তাদের মধ্যে অনেকেই আবার প্রবাসী।anser-al
গত ৮ নভেম্বর আনসার আল-ইসলাম তাদের হিটলিস্টটি প্রকাশ করে। কে কোন দেশের বাসিন্দা তা-ও লিখা রয়েছে হিটলিস্টে। হিটলিস্টে নাম থাকা কয়েকজন দাবি করেছেন, পূর্বের হিটলিস্টে তাদের নাম ছিল না। তারা বলছেন, অতিসম্প্রতি তাদের কাছে ফেসবুকের মাধ্যমে নিজেদের প্যাডে কম্পিউটার কম্পোজ করা হিটলিস্টটি পাঠিয়ে দিয়েছে আনসার আল ইসলাম।
ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এটা তারা বিশ্লেষণ করছেন। এর বেশি তিনি আর কিছু বলতে চাননি। হিটলিস্টে থাকা নামগুলো হচ্ছে, আবদুল গাফফার চৌধুরী- লন্ডন, জাফর ইকবাল- বাংলাদেশ, দাঊদ হায়দার জার্মানি, নির্মলেন্দু গুণ-বাংলাদেশ, মহাদেব সাহা- বাংলাদেশ, তসলিমা নাসরিন- আমেরিকা, শাহরিয়ার কবির- বাংলাদেশ, আবেদ খান- বাংলাদেশ, মুনতাসির মামুন- বাংলাদেশ, মফিদুল হক- বাংলাদেশ, মোহাম্মদ এ আরাফাত- বাংলাদেশ, মাহবুবুর রহমান জালাল- টেক্সাস, আমেরিকা, রামেন্দু মজুমদার- বাংলাদেশ, সৈয়দ আনোয়ার হোসেন- বাংলাদেশ, রায়হান রশিদ- লন্ডন, সৈয়দ হাসান ইমাম- বাংলাদেশ, তুরিন আফরোজ- বাংলাদেশ, অমি রহমান পিয়াল- বাংলাদেশ, খালেদুর রহমান শাকিল- বাংলাদেশ, আরিফ রহমান- লন্ডন, ইমরান এইচ সরকার- বাংলাদেশ, আরিফ জেবতিক- বাংলাদেশ, বাপ্পাদিত্য বসু- বাংলাদেশ, আসিফ মহিউদ্দিন- জার্মানি, অনন্য আজাদ- জার্মানি, কামাল পাশা চৌধুরী- বাংলাদেশ, লাকি আকতার- বাংলাদেশ, জনার্ধন দত্ত নান্টু- বাংলাদেশ, ইব্রাহিম খলিল সবাক- বাংলাদেশ, ডা. নাজমুল হাসান- বাংলাদেশ, আরিফুজ্জামান পৃথিল- বাংলাদেশ, কানিজ আকলিমা সুলতানা- বাংলাদেশ, এফএম শাহিন- বাংলাদেশ ও সাম্মি হক- বাংলাদেশ।
নতুনদের দুজনসহ হিটলিস্টে নাম থাকা বাংলাদেশে বাসরত কয়েকজন নাম না প্রকাশের শর্তে জানিয়েছেন, এ হিটলিস্টের সত্যতা নিয়ে তারা সন্দিহান। কিন্ত একেবারে আমলে না নিয়ে পারছেন না। কেননা, পূর্বে এ ধরনের যে হিটলিস্ট সম্পর্কে তারা শুনেছেন এবং দেখেছেন, তাতে বর্তমান হিটলিস্টের অনেকের নামই ছিল। এরই মধ্যে কেউ কেউ পুলিশের সহযোগিতা চেয়েছেন বলে সূত্রে জানা যায়।
সাম্মি হকের নামের পর লিখা আমাদের আরও তার্গেট (টার্গেট) আসছে। হিটলিস্টের নিচে ‘মূলকথা’ শিরোনামে একটি প্যারা আছে। যেখানে লিখা যারাই লেখনী-কথা-কাজের মাধ্যমে আল্লাহ, তাঁর রাসুল (স.) ও তাঁর দ্বীনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে, এমন সকল মুরতাদ ও ইসলামের শত্রুরাই মুজাহিদিনদের টার্গেট হবে ইনশাআল্লাহ্।
কোনো সাধারণ মুসলমান কখনই আমাদের টার্গেট নয়। আমরা সেই অবস্থা থেকে আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাই। কোনো সাধারণ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান কিংবা যারা আল্লাহর দ্বীনের সঙ্গে শত্রুতা করছে না, তারাও আমাদের টার্গেট নয়। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন যেন মুজাহিদিনদের হাতে তাঁর শত্রুদের শাস্তি প্রদান করেন এবং মুমিনদের অন্তরকে প্রশান্ত করেন। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন যেন এই জমিনে ইসলামি শরিয়াতকে বিজয়ী করে দেন। নিশ্চয়ই বিজয় শুধুমাত্র আল্লাহর পক্ষ হতেই আসে। তিনিই আমাদের একমাত্র সাহায্যকারী, আমাদের অভিভাবক। আমরা শুধু তাঁরই ইবাদত করি এবং তাঁর কাছেই সাহায্য চাই। তিনিই সকল প্রশংসার একমাত্র যোগ্য। সালাত ও সালাম বর্ষিত হোক নবী মুহাম্মাদ (স.) এর উপর। এর নিচে লিখা মুফতি আবদুল্লাহ আশরাফ। তার পরিচয় দেয়া আনসার আল ইসলামের (আলকায়দা ভারতীয় উপমহাদেশ) মুখপাত্র হিসেবে। সূত্র : শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply

%d bloggers like this: