এনায়েতবাজার মহিলা কলেজকে সরকারিকরণের দাবিতে মানববন্ধন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৫ জানুয়ারী ২০১৭, বুধবার: ‘কলেজের ব্যয়ভার সামলাতে পরিবার হিমশিম খাচ্ছে। এমনও হতে পারে আমার লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যেতে পারে। যদিও বাবা অনেক কষ্টে আমার লেখাপড়া চালিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। সব দিক বিবেচনা করে আমরা মহিলা কলেজ চট্টগ্রামকে সরকারিকরণের জন্য আন্দোলনে নেমেছি। ’
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সামনে বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় এসব কথা বলছিলেন কলেজের ছাত্রী সালমা। এনায়েতবাজার মহিলা কলেজকে (মহিলা কলেজ, চট্টগ্রাম) সরকারিকরণের দাবিতে মানববন্ধনে আসেন তিনি।
সোমবার থেকে চলমান এ আন্দোলনের তৃতীয়দিন বুধবার এনায়েতবাজার মহিলা কলেজের ৫ শতাধিক ছাত্রী ব্যানার ও ফেস্টুন হাতে মানববন্ধনে অংশ নেয়। তাদের একটাই দাবি ‘কলেজ সরকারিকরণ চাই’।হাতে ব্যানার, কণ্ঠে স্লোগান ‘কলেজ সরকারিকরণ চাই’
এনায়েতবাজার মহিলা কলেজের ছাত্রী সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক সঞ্চিতা দাশ সৃষ্টি বলেন, বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ঠিক এক বছর আগে ১৯৭০ সালে এনায়েতবাজার মহিলা কলেজ (মহিলা কলেজ, চট্টগ্রাম) প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে নারী শিক্ষা বিস্তারে এ কলেজটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। মহানগরীসহ চট্টগ্রাম জেলা ও উপজেলা থেকে ছাত্রীরা এ কলেজে এসে অধ্যয়ন করছে। এ পর্যন্ত কলেজ থেকে অধ্যয়ন করে অনেক ছাত্রী বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সেক্টরে কাজ করছে।
বেসরকারি হওয়ায় এ কলেজে ভর্তি ফি, বেতনসহ নানান খাতে ছাত্রীদের দিতে হচ্ছে মোটা অংকের টাকা। প্রবল ইচ্ছেশক্তি থাকার পরও অনেক ছাত্রীকে ব্যয়ভার সামলাতে না পেরে মাঝপথে লেখাপড়া বন্ধ করে দিতে হচ্ছে। এর একটাই কারণ আর্থিক অনটন। কলেজটি সরকারিকরণ হলে হয়তো এভাবে স্বপ্নভঙ্গের কান্নায় আর কোন শিক্ষার্থীকে ভাসতে হতো না। তাই অবিলম্বে এ কলেজকে সরকারিকরণে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতি আকুল আবেদন জানাচ্ছি। হাতে ব্যানার, কণ্ঠে স্লোগান ‘কলেজ সরকারিকরণ চাই’
এনায়েতবাজার মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী ইশরাত জাহান বলেন, কলেজ সরকারিকরণ করতে আমরা ডিসেম্বর থেকে কলেজের প্রায় সকল ছাত্রীদের কাছ থেকে স্বাক্ষর সংগ্রহ করেছি। ছাত্রীদের স্বাক্ষর সম্বলিত আবেদনটি ইতোমধ্যে অধ্যক্ষের মাধ্যমে কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে অবহিত করেছি। আমাদের কলেজ সরকারিকরণ করলে অনেকে ছাত্রীর উপকার হবে। মাঝপথে কোন শিক্ষার্থীকে লেখাপড়া বন্ধ করে দিতে হবে না।
কেননা, শুধু একজনের পিছনে মাসে ৪/৫ হাজার টাকা খরচ হয়। তাহলে আমার অন্য ভাই-বোনদেরও তো লেখাপড়া করতে হবে। তাই সরকারের প্রতি আবেদনের আকুল আবেদন এনায়েতবাজার মহিলা কলেজকে অবিলম্বে সরকারিকরণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি।হাতে ব্যানার, কণ্ঠে স্লোগান ‘কলেজ সরকারিকরণ চাই’
কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী নন্দিতা দাশ বাংলানিউজকে বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীতে শুধুমাত্র একটি সরকারি মহিলা কলেজ রয়েছে। যা এই অঞ্চলের ছাত্রীদের জন্য অপ্রতুল। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নারী শিক্ষাকে সর্ব্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। এক্ষেত্রে শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আমাদের আকুল আবেদন কলেজের প্রায় ২৫০০ ছাত্রীর প্রাণের দাবি মহিলা কলেজ, চট্টগ্রামকে সরকারিকরণ চাই।
বেলা ১২টার দিকে দাবি সম্বলিত ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে প্রেসক্লাবের সামনে থেকে নগর ভবনে মেয়রের কাছে স্মারকলিপি দিতে যান। মেয়রের পক্ষে স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সচিব। এর আগে মঙ্গলবার কলেজ সরকারিকরণের দাবিতে ছাত্রীরা একইভাবে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি জমা দিয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*